Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আক্রান্ত দেশের ১৬ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক এবং ১৮ দশমিক ৪ শতাংশ শিশু

মানসিক রোগের চিকিৎসক অপ্রতুল

| প্রকাশের সময় : ২৭ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : দেশের ১৬ দশমিক শূন্য ১ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক জনগোষ্ঠী ও ১৮ দশমিক ৪ শতাংশ শিশু কোনো না কোনো প্রকার মানসিক অসুস্থতায় আক্রান্ত। কিন্তু জনসংখ্যার এই বৃহৎ অংশের সেবাদানের জন্য মাত্র ২১০ জন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ও ৫০ জন চিকিৎসা মনোবিজ্ঞানী রয়েছেন। চাহিদার তুলনায় অত্যন্ত অপ্রতুল।
‘বাংলাদেশে মানসিক স্বাস্থ্যের বর্তমান অবস্থা ও সেবাসমূহ : প্রত্যাশা ও বাস্তবতা’ শীর্ষক এক জাতীয় সেমিনারে বক্তারা এ তথ্য জানান। গত বুধবার রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টার কনফারেন্স হলে এ  সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারের আয়োজন করে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অধিকার সমুন্নত করার কাজে নিয়োজিত যুক্তরাজ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা এডিডি ইন্টারন্যাশনাল।
বাংলাদেশে মানসিক স্বাস্থ্যসম্পর্কিত সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে আয়োজিত এই সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের এনসিডিসি প্রোগ্রামের লাইন ডিরেক্টর ডা. মো. ফারুক আহম্মেদ ভূঁইয়া, বিশেষ অতিথি ছিলেন কমিউনিটি বেসড হেলথ কেয়ারের লাইন ডিরেক্টর ডা. মমতাজুল হক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লিনিক্যাল সাইকোলজি বিভাগের অধ্যাপক ও বাংলাদেশ ক্লিনিক্যাল সাইকোলজি সোসাইটির সভাপতি ড. মোহাম্মদ মাহমুদুর রহমান এবং সিবিএমর কান্ট্রি  কো-অর্ডিনেটর মো. শাহনেওয়াজ কোরেইশী। সেমিনারে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট, ক্লিনিক্যাল সাইকোলজি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং এডিডি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের পক্ষ থেকে মোট তিনটি প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক ডা. হেলাল উদ্দিন আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লিনিক্যাল সাইকোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক কামাল উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী এবং এডিডি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের প্রকল্প ব্যবস্থাপক নাজমুন নাহার।  সেমিনারে উপস্থাপিত প্রবন্ধসমূহে বাংলাদেশে মানসিক স্বাস্থ্যের বর্তমান অবস্থা ও সেবাসমূহের বাস্তব চিত্র তুলে ধরা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন