Inqilab Logo

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

শ্রীপুরে ৪ ডিবি কর্মকর্তা প্রত্যাহার

| প্রকাশের সময় : ২৭ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

শ্রীপুর উপজেলা সংবাদদাতা : গাজীপুরের শ্রীপুরে মাওনা চৌরাস্তা এলাকার আল আমিন ফুড ইন্ডাস্ট্রিতে চাঁদাবাজির অভিযোগে ৪ ডিবি পুলিশকে ব্যবসায়ীরা অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনায় জেলা ডিবি পুলিশের এসআই মিঠু শেখ, এসআই গোলাম কিবরিয়া, এসআই খায়রুল ইসলাম ও এএসআই মাহবুব আলমকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে গাজীপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম সবুরকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে মাওনা এলাকার ব্যবসায়ীদের মধ্যে ডিবি পুলিশের গ্রেফতার আতংক বিরাজ করছে। জানা যায়, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক সংলগ্ন মাওনা চৌরাস্তার আল-আমিন ফুড ইন্ডাস্ট্রিতে বুধবার রাত ৭টার দিকে এস.আই খায়রুল ইসলামের নেতৃত্বে চার সদস্যের ডিবি পুলিশের দল অভিযান চালায়। এসময় কারখানায় কেমিক্যাল মিশ্রিত মুড়ি তৈরি, বিএসটিআই কাগজপত্র, পরিবেশের ছাড়পত্র ইত্যাদি দেখানোর পরও ডিবি পুলিশ এগুলো সঠিক কাগজপত্র না বলে কারখানার মালিক আবুল কালামকে হাতকড়া লাগিয়ে আটক করে ৫ লাখ টাকা দাবি করে। এ খবর আশপাশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে পূর্ব থেকে ডিবি পুলিশ দ্বারা নির্যাতিত সংক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা উত্তেজিত হয়ে ডিবি পুলিশের ওপর চড়াও হয়। উত্তেজিত জনতা ও ব্যবসায়ীরা পুলিশের সোর্স রাসেলকে গণধোলাই দিয়ে কারখানার ভিতরে বেঁধে রাখে এবং ডিবি পুলিশের দলকে কারখানার ২য় তলার একটি কক্ষে অবরুদ্ধ করে রাখে। এসময় উত্তেজিত জনতা ডিবি পুলিশের ব্যবহৃত নাম্বার বিহীন মাইক্রোবাস ভাঙচুর করে আগুন লাগিয়ে দেয় ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ওপর টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শ্রীপুর

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
২৪ ডিসেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ