Inqilab Logo

বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৬ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

ঠাকুরগাঁওয়ে প্রতারিত গৃহবধূর আত্মহত্যা মুচলেকা নিয়ে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ

| প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ঠাকুরগাঁও জেলা সংবাদদাতা : ভুল বুঝিয়ে ঠাকুরগাঁওয়ে এক গৃহবধূর টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। প্রতারনার ফাঁদে পরে টাকা ফেরৎ না পাওয়ায় বিষপানে করে আতœহত্যা করেছে ওই গৃহবধূ। জানা যায়, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা জামালপুর ইউনিয়নের পূর্ব পারপুগি গ্রামের ফিরোজা (৪০) নামের এক গৃহবধূ আতœহত্যার পথ বেছে নেয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজ বাড়িতে বিষ পান করে আতœহত্যা করে ওই গৃহবধূ।
এলাকাবাসি সূত্রে জানা যায়, ফিরোজা (৪০) প্রায় দেড় বছর আগে বসতভিটা ক্রয়ের জন্য ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা একই গ্রামের সমির উদ্দিনকে দেয়। কিন্তু সমির উদ্দিন গৃহবধূকে জমি না দিয়ে টাকা ফেরত দিতে টালবাহানা শুরু করে। এ নিয়ে ওই গৃহবধূর সাথে তার স্বামীর দন্দ শুরু হয়। অবশেষে গত বুধবার রাতে ফিরোজাকে টাকা দেওয়ার জন্য বাসায় ডেকে নিয়ে অপমান করে এবং তার টাকা ফেরত দিবে না বলে সাপ জানিয়ে দেয় সমির। আর এ বিষয়ে কাউকে জানালে তাকে মেরে ফেলার হুমকিও প্রদান করে। গৃহবধূ ফিরোজা অপমানিত হয়ে পরদিন বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজ বাড়িতে বিষ পান করে আতœহত্যা করে। গৃহবধূর মা হাসিনা বেগম থানায় অভিযোগ করলে সমির উদ্দিনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। পরে সমির উদ্দিন ফিরোজার টাকা আগামী ১ মাসের মধ্যে ফেরত দিতে চাইলে পুলিশ মুচলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেয়। এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও থানার অফির্সাস ইনচার্জ মশিউর রহমান এর সাথে কয়েক দফা যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে না পাওয়া না গেলে তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই চন্দন জানান বড় স্যার যা করেছে আমার আর কি বলার আছে। আমরা হুকুমের গোলাম মাত্র।
গতকাল শুক্রবার লাশের ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। সদর থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পুলিশ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ