Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

সার্চ কমিটির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে সম্পূরক আবেদন

| প্রকাশের সময় : ২৯ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনের জন্য গঠিত সার্চ কমিটির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে সম্পূরক আবেদন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় অ্যাডভোকেট ইউনূস আলী আকন্দ এ আবেদন করেন। আবেদনে রুল শুনানি না হওয়া পর্যন্ত সার্চ কমিটির কার্যক্রম স্থগিত চাওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য আইন তৈরির নির্দেশনা চেয়ে দায়ের একটি রিট বিচারাধীন রয়েছে। এমতাবস্থায় সার্চ কমিটি গঠন অবৈধ। নির্বাচন কমিশন, মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও আইন সচিবকে রিটে বিবাদি করা হয়েছে।
আইনজীবী ইউনূস আলী আকন্দ বলেন, ইসি গঠনে আইন প্রণয়নের নির্দেশনা চেয়ে ১১ জানুয়ারি হাইকোর্টে একটি রিট করেছি। ওই রিটটি রোববার (আজ) শুনানির জন্য বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের বেঞ্চের কার্যতালিকায় রয়েছে। ওই রিটেই এই সম্পূরক আবেদন করা হয়েছে।
ইউনূস আলী আকন্দ বলেন, সংবিধানের ১১৮ নম্বর অনুচ্ছেদে নির্বাচন কমিশন গঠন ও দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে সংবিধান ও আইনের অধীনে পরিচালিত হওয়ার কথা বলা থাকলেও এখন পর্যন্ত আইন প্রণয়ন করা হয়নি। একটি গুরুত্বপূর্ণ সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান সংবিধানের বাইরে চলতে পারে না। আর আইনে সার্চ কমিটির কথা নেই। তাই সার্চ কমিটি গঠন করে যে গেজেট জারি করা হয়েছে তার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে।
সংবিধানের ১১৮ নম্বর  অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, (১) প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং অনধিক চারজন নির্বাচন কমিশনারকে লইয়া বাংলাদেশের একটি নির্বাচন কমিশন থাকিবে এবং উক্ত বিষয়ে প্রণীত কোনো আইনের বিধানাবলীসাপেক্ষে প্রেসিডেন্ট প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনারকে নিয়োগ দান করিবেন। (৪) নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে স্বাধীন থাকিবেন এবং কেবল এই সংবিধান ও আইনের অধীন হইবেন।
আজ (রোববার) বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি  জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চে রিট আবেদনের ওপর শুনানি হতে পারে।
প্রসঙ্গত, নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে চেয়ারম্যান করে ছয় সদস্যের সার্চ কমিটি গঠন করেছেন প্রেসিডেন্ট। অন্য সদস্যরা হলেনÑ হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, সরকারি কর্মকমিশন চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক, মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক (সিএজি) মাসুদ আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি অধ্যাপক শিরীন আকতার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সার্চ কমিটি

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭
২৫ জানুয়ারি, ২০১৭

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ