Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০১৯, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৪ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

সার্চ কমিটি নিয়ে কোনো আশা নেই : মির্জা ফখরুল

| প্রকাশের সময় : ২৯ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : নির্বাচন কমিশন গঠনে সার্চ কমিটি ‘দলীয় সঙ্কীর্ণতা’র ঊর্ধ্বে উঠে কাজ করতে পারবে কি নাÑ সে বিষয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে দেশের প্রধান বিরোধী দল বিএনপি। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, যে সার্চ কমিটি গঠিত হয়েছে, তারা কী করবেন, এটা সম্পর্কে আমাদের ধারণা প্রায় স্পষ্ট। সেজন্য আমরা পার্টি হিসেবে নতুন করে কোনো আশা দেখতে পাচ্ছি না।
গতকাল শনিবার দুপুরে জাতীয়তাবাদী যুবদলের নবগঠিত কমিটিকে সঙ্গে নিয়ে শেরেবাংলা নগরে বিএনপি প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সার্চ কমিটি নিয়ে কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এখন জনগণের আশা-আকাক্সক্ষার প্রতিফলন তারা যদি ঘটাতে পারেন, তাহলে আমরা মনে করব দলীয় সঙ্কীর্ণতার ঊর্ধ্বে উঠে তারা কাজ করবেন।
জানি না, তারা পারবেন কি না। আমরা খুব বেশি আশা করছি না। সার্চ কমিটি নিয়ে বিএনপির আপত্তির কথা তুলে ধরে মির্জা ফখরুল বলেন, বাংলাদেশের মানুষ প্রত্যাশা করে, রাজনৈতিক সঙ্কট নিরসন করতে একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য একটি নিরপেক্ষ সার্চ কমিটি সত্যিকার অর্থেই নিরপেক্ষ ব্যক্তিদের দিয়ে গঠন করা হবে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে সার্চ কমিটির যারা সদস্য হয়েছেন, তারা প্রায় সবাই আওয়ামী লীগের সঙ্গে সম্পৃক্ত। সে ক্ষেত্রে তাদের দ্বারা গঠিত নির্বাচন কমিশন কতটুকু নিরপেক্ষ হবে, সে সম্পর্কে আমরা সন্দেহ প্রকাশ করেছি।
এই কমিটিতে দেশের মানুষের আশা-আকাক্সক্ষা পূরণ হয়নি মন্তব্য করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেন, এতে আমরা আহত হয়েছি, আমরা কিছুটা ক্ষুব্ধ।
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও সংসদের বাইরে থাকা বিএনপিসহ ৩১টি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনার পর প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ গত বুধবার এই সার্চ কমিটি গঠন করেন। সুপ্রিম  কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে গঠিত ছয় সদস্যর কমিটিকে ১০ কার্যদিবসের মধ্যে নতুন নির্বাচন কমিশনের জন্য নাম প্রস্তাবের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তাদের সুপারিশ থেকে অনধিক পাঁচ সদস্যর ইসি নিয়োগ দেবেন প্রেসিডেন্ট। কমিটির অপর সদস্যরা হলেনÑ হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) চেয়ারম্যান  মোহাম্মদ সাদিক, মহা-হিসাব নিরীক্ষক (সিএজি) মাসুদ আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য শিরীন আখতার।
এরআগে যুবদলের নতুন সভাপতি সাইফুল ইসলাম নীরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর নেতৃত্বে কমিটির সদস্যদের নিয়ে বিএনপি প্রতিষ্ঠাতার মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান মির্জা ফখরুল।
এসময় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, কেন্দ্রীয় নেতা মীর সরফত আলী সপু, আমিরুল ইসলাম আলিম, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, যুবদলের নতুন কমিটির মোর্ত্তাজুল করীম বাদরু, নুরুল ইসলাম নয়ন, মামুন হাসান, উত্তরের সভাপতি এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সফিকুল ইসলাম মিল্টন, দক্ষিণের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহিনসহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, দীর্ঘ সাত বছর পর গত ১৭ জানুয়ারি নীবর-টুকুর নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের আংশিক কেন্দ্রীয় কমিটি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও উত্তরের আংশিক কমিটি অনুমোদন দেয় বিএনপি।



 

Show all comments
  • Mohammed Shah Alam Khan ২৯ জানুয়ারি, ২০১৭, ৭:৫৯ এএম says : 0
    মহাসচিব ফকরুল সাহেবের কথাগুলো যুক্তি সম্পন্ন ও গ্রহণ যোগ্য হলেও এসব কথার আর কোন মূল্য এইমূহুর্তে নেই। সার্চ কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং তারাও কাজ শুরু করে দিয়েছে এখন এটা নিয়ে আর কোন কথা বলা না বলা একই কথা। এখন দেখার বিষয় ৩১ দল কি করে, তাদের কাছ থেকেই নির্বাচন কমিশন গঠন করার জন্য নাম আহ্বান করা হয়েছে। এখন এসব দলের পাঠান নাম থেকেই সার্চ কমিটি ১০টি নাম পাঠাবে এবং সেখান থেকেই ৫ জনকে নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে এটাই এখন সত্য। আমি বারবার বলছি বিএনপি এখন যত ভাল কথাই বলুক না কেন তাদের কথা জনগণ গ্রহণ করবে না এটাই সত্য। কাজেই এটা প্রতিয়মান যে বিএনপি এখন আর প্রকাশ্যে করার মত দল আর নাই। তাদের ডাকে কেহই সাড়া দিবে না, বরং প্রকাশ্যে তাদের বিপক্ষেই বলতে থাকবে। আমি ভয় পাই আওয়ামী লীগ যেভাবে এখনই জয়ী হয়েগেছে ভাবছে এই কারনে আবার না তারা পিছল খেয়ে পড়ে যায়; সেটাও ভাববার বিষয়। দেখাযাক নির্বাচন কমিশনে কারা আসেন আর তারা সকল রাজনৈতিক দলের কতটা গ্রহণ যোগ্যতা লাভ করেন। আল্লাহ্ দেশকে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য যোগ্যদের হাতেই ক্ষমতা রাখুন। আমীন
    Total Reply(0) Reply
  • Nazma ২৯ জানুয়ারি, ২০১৭, ১১:৫৪ এএম says : 0
    dekha jak tara ki kore
    Total Reply(0) Reply
  • Momtaz ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১:১০ পিএম says : 0
    সম্মানীত প্রেসিডেন্টের সচিবের কথাতে অনুমান করাযায় যে কোন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাবেক ভিপি বা ছাত্রনেতাকে নির্বাচন কমিশন বানানো হইতেছে বলে আমি মনে করি
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ