Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০, ২৭ চৈত্র ১৪২৬, ১৫ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

চাঁদপুরে টয়লেটের সেপটিক ট্যাঙ্কে পড়ে শিশুর মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

চাঁদপুর জেলা সংবাদদাতা : চাঁদপুরে বিআইডব্লিউটি’র গাফিলতিতে বাথরুমের সেপটিক ট্যাঙ্কে পড়ে আছমা আক্তার পাখি (৩) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় সদর উপজেলার হানারচর ইউনিয়নের হরিণা ফেরিঘাটে।
চাঁদপুর হরিণা ফেরিঘাট এলাকার বিআইডব্লিউটি’র খোলা মাঠে প্রতিদিনই খেলাধুলা করে স্থানীয় শিশু-কিশোররা। ঘটনার দিন মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় আলমগীর হাওলাদারের ৩ বছরের মেয়ে আছমা আক্তার পাখি বাড়ির অন্যান্য শিশুদের সাথে ঐ মাঠে খেলা করছিল। হঠাৎ সবার অজান্তে সে মাঠের পাশে বিআইডব্লিউটি’র টয়লেটের সেপটিক ট্যাঙ্কে শিশুটি পড়ে যায়। পরক্ষণে তাকে না পেয়ে খুঁজতে গিয়ে সেপটিক ট্যাঙ্কের ভেতরে দেখতে পায়। পরে তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে জানায়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।
এ ঘটনায় স্থানীয় মেম্বার মহসিনসহ এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, প্রায় ১৫/২০ বছর আগে হরিণা ফেরিঘাট এলাকায় বিআইডব্লিউটি’এর স্থাপনা নির্মাণ করা হয়। ঐ সময় বাথরুমের সেপটিক ট্যাঙ্কের ঢাকনা দিলেও তা ভেঙ্গে যায় বেশ কয়েক বছর আগে। অথচ বিআইডব্লিউটির কর্মকর্তাদের একাধিকবার বলা হলেও তারা মেরামত করেননি। ফলে বিআইডব্লিউটি’র গাফিলতির কারণে এই অবুঝ শিশুটি মারা গেলো। তাই স্থানীয়রা ওই ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে সংশ্লিষ্টদের অপসারণ দাবি করেন।
হানারচর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান লনী গাজী বলেন, ইতোপূর্বে নৌ-পরিবহণ মন্ত্রী শাহাজাহান খান বেশ কয়েকবার চাঁদপুর এসে হরিণা ফেরিঘাট এলাকার বিআইডব্লিউটির স্থাপনাসমূহ মেরামতের নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু কে শোনে কার কথা।
এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটি’র নৌ-বন্দর কর্মকর্তা মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ঘটনার পরই আমি বিষয়টি জানতে পেরেছি। বাথরুমের সেপটিক ট্যাঙ্কের ঢাকনাগুলো এলাকার লোকজন ভেঙ্গে নিয়ে গেছে। তবে দুর্ঘটনায় শিশু মৃত্যুর ঘটনায় তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, হরিণা ঘাটে দায়িত্বপ্রাপ্ত সুপারভাইজার একরামুল হক ভূঁইয়াকে অপসারণ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ