Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

অমর একুশে গ্রন্থমেলা কচিকাঁচার বইমেলা

| প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

এহসান আব্দুল্লাহ : মেলায় চলেছে শিশু প্রহর। গতকাল চতুর্থ দিনের মতো বাংলা একাডেমি এবারে প্রতি সপ্তাহের শুক্র ও শনিবার মেলায় শিশুপ্রহর ঘোষণা করেছে। এবার শিশু কর্ণার রাখা হয়েছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের পূর্ব পাশে। বাংলা একাডেমির নিজস্ব শিশু-কিশোর স্টল ছাড়াও এখানে রয়েছে শিশুদের জন্য রকমারি স্টল। এগুলোতে পাওয়া যাচ্ছে শুধু শিশুতোষ বইসমূহ। মেলায় ঘুরতে আসা শিশুরা বাবা মায়ের হাত ধরে ভিড় করছে স্টলগুলোতে। হাতে নিয়ে পৃষ্ঠা উল্টিয়ে দেখছে বইয়ের প্রচ্ছদ, সাজসজ্জা ও বিভিন্ন কার্টুন। এক স্টল থেকে আরেক স্টল ঘুরে ঘুরে খুঁজছে তাদের পছন্দসই বই। কমিক্স, কার্টুন, রুপকথার গল্প এক এক করে বেছে নিচ্ছে নিজেদের মনের মতো করে। শিশু কর্ণারের একপাশে রয়েছে শিশু চত্বর। সিসিমপুরের পক্ষ থেকে এখানে রয়েছে শিশুদের জন্য বিনোদনের ব্যবস্থা।
মেলার অন্যান্য স্টলগুলোর মতো চোখে পড়ার মতো ভিড় না থাকলেও এখানে ভিড় একেবারেই কম নয়। শিশুদের পাশাপাশি প্রাপ্তবয়স্করাও ভিড় জমাচ্ছেন এই স্টলগুলোতে। কেউ নিজের সন্তানের জন্য অথবা কেউ ভাগ্নে-ভাগ্নি বা পরিচিত ছোট্ট আপনমুখগুলোর জন্য। এভাবে প্রিয়মুখগুলোর জন্য সেরা কিছু বেছে নেয়ার জন্য এসেছেন তারা। শিশুদের পছন্দের তালিকায় বিভিন্ন কমিক্স, কার্টুনসহ বই ও ভূতের গল্পের বই থাকলেও বড়রা কিনছেন শিশুতোষ বিভিন্ন শিক্ষামূলক বই ও ছড়ার বই।  
ছুটির দিন থাকাতে বেচাকেনাও হচ্ছে ভালোই। ঘাস-ফড়িং-এর স্টল পরিচালক শাহাদাত হোসেন বলেন, বেচাকেনা ভালোই হচ্ছে। আমাদের এখানে শিশুতোষ শিক্ষামূলক বইগুলো বেশি বিক্রি হচ্ছে।
সিসিমপুরের বিক্রয়কর্মী সজীব খান বলেন, আজকে ভালোই বিক্রি হচ্ছে। শিশুরা কার্টুনসহ বই বেশি পছন্দ করছে। এছাড়াও ছড়ার বইও কিনছেন অনেকে।
মেলায় প্রথমবারের মতো ঘুরতে আসা সেন্ট গ্রেগরী হাইস্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র যিশু নাথ চৌধুরী এসেছে বাবা-মায়ের সাথে। মেলার কয়েকটি স্টল ঘুরে ঘুরে সে দেখছে পছন্দের বই। ভূতের গল্পের বই তার পছন্দ।
বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্কুলের কেজি শ্রেণীর ছাত্র আহসান বিন রাপান মায়ের সঙ্গে এবারই প্রথম মেলায় এসেছে। বইমেলা বুঝে না সে, তবে মা বলেছে এখানে সুন্দর সুন্দর বই পাওয়া যায়। কিনেছে ভূতের বাড়ি, জাম্বো কার্টুন নামে দুটি শিশুতোষ বই। প্রতিবার বাবা বই কিনে দিলেও এবার নিজেই পছন্দ করে বই কিনেছে সে।
মেলায় আজ এসেছে রফিক মুহাম্মদের শিশুদের ছড়ার বই ‘পাখির আশা-পাখির বাসা’। পাওয়া যাচ্ছে শিশু কর্ণারের সপ্তডিঙ্গার স্টলে। সাইদুর রহমানের কবিতার বই মন:পীড়া। সাইদুর রহমান রুবেলের লেখা বই ভূতের রাজ্য।
গতকাল মেলায় নতুন বই এসেছে ২০১টি এবং ৬২টি নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।
বইমেলায় সুজনের গল্পগ্রন্থ ‘যদি কখনো ভালোবাসো’
বইমেলায় পাওয়া যাচ্ছে সাখাওয়াত হোসেন সুজনের প্রথম গল্পগ্রন্থ ‘যদি কখনো ভালোবাসো’। বইটি প্রকাশ করেছে ‘শিল্পৈশী’ প্রকাশনী। পরিবেশক পূর্বা ও প্রকৃতি প্রকাশনী।
বইটি পাওয়া যাচ্ছে পূর্বা প্রকাশনী (স্টল নম্বর ২৭৫), প্রকৃতি প্রকাশনী (স্টল নম্বর ৪৯০) ও লিটল ম্যাগ চত্বরের ১৭ নম্বর স্টলে (রোদ্দুর)। সেইসঙ্গে পাঠকরা রকমারিতেও অর্ডার করতে পারবেন এই ঠিকানায় :
িি.িৎড়শড়সধৎর.পড়স/ংযরষঢ়ড়রংযর বইটির প্রচ্ছদ করেছেন আরিফুল হাসান। গায়ের মূল্য ধরা হয়েছে ১২০ টাকা। ডিসকাউন্টসহ ১০০ টাকার মধ্যেই পাওয়া যাবে বইটি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন