Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫, ১১ সফর ১৪৪০ হিজরী

প্রাথমিক লক্ষ্য ফলোঅন এড়ানো

তিন হাজারী ক্লাবে মুশফিক # প্রথম ফিফটি মিরাজের

| প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা হায়দারাবাদ (ভারত) থেকে : দিনের শেষ ওভারের চতুর্থ বলে ইশান্ত শর্মার বাউন্সারে ডান হাতের কব্জিতে যখন মুশফিকুর পেলেন আঘাত, তখন বাংলাদেশ ড্রেসিং রুমের চেহারা ছেয়ে দিয়েছিল বিষণœতায়। ইশান্ত শর্মার পরের শর্ট বলকে দর্শনীয় পুলে স্কোয়ার লেগ দিয়ে সীমানা ছাড়া করে পেয়েছেন টেস্টে চতুর্থ বাংলাদেশি হিসাবে তিন হাজারী ক্লাবের সদস্যপদ। হাবিবুল, তামীম, সাকিবের পর চতুর্থ বাংলাদেশি হিসেবে তার এই মাইলস্টোনের দিনটিতে দারুণ প্রতিরোধ করেছে বাংলাদেশ। ওয়েলিংটনে সাকিবের সঙ্গে ৩৫৯ রানের পর হায়দারাবাদে ১০৭ রানের পার্টনারশিপে দিয়েছেন নেতৃত্ব মুশফিকুর রহিম। মুশফিকুর রহিমের চেনা চেহারায় বিস্ময়ের কিছুই নেই। তবে দিনের পড়ন্ত বেলায় সময়ের সেরা অফ স্পিনার অশ্বিনকে নয়ন জুড়ানো লেট কাটে বাউন্ডারি শটে মিরাজের প্রথম টেস্ট ফিফটি উদযাপনের মুহূর্তটি এক কথায় ছিল অসাধারণ। গত বছরে অনুষ্ঠিত আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে যে ছেলেটি ২৪২ রানের পাশে ১২ উইকেটে আসর সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার পেয়েছেন, সেই ছেলেটি টেস্টে কিভাবে ভুলে গেলেন ব্যাটিং? আগের চার টেস্টে সর্বসাক‚ল্যে ২০ রানে এ প্রশ্নের মুখেই পড়তে হয়েছে মিরাজকে। তবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মিরপুর টেস্ট জয়ের নায়ক যে ব্যাটিংয়ের চাহিদাও মেটাতে পারেন, হায়দারাবাদ টেস্টে সে পণ করেই যেনো নেমেছিলেন ব্যাটিংয়ে। টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে মিডিয়াকে দিয়েছিলেন কথাÑ ‘ব্যাট হাতেও সুযোগ পেলে কিছু করতে চাই। আমি যে জায়গায় ব্যাট করি, সেটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কিছু রান করতে পারলে আমার আত্মবিশ্বাস বাড়বে। দলেরও উপকার হবে।’ রেখেছেন সে কথা। তৃতীয় দিনের শেষ সেশন উইকেটহীন নির্বিঘেœ কাটিয়েছে বাংলাদেশ, তার হার না মানা ৫১ রানের কারণেই।
ড্রেসিংরুমে বসে ১৯ বছরের এই ছেলেটির এমন ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ সাকিবÑ ‘মিরাজের প্রথম ফিফটি অবশ্যই ওর জন্য স্পেশাল একটা দিন। খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা সময়ে ওর এমন একটা ইনিংস আমাদের দলের জন্য অনেক সাহায্য করবে। সে তার পেছনের ইনিংসগুলোতে রান করতে পারেনি। আমরা তাকে নিয়ে যেভাবে ভাবি, সেভাবেই আজ (গতকাল) খেলেছে সে। (গতকাল) আজ প্রমাণ করেছে সে ব্যাট করতে পারে। কাল (আজ) তার ইনিংস আরো বড় হবে বলেই আমি আশা করছি। মুশফিক ভাইয়ের সাথে উইকেটে থেকে দলের জন্য অবদান রাখাটা তার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল। তা দারুণভাবে করেছে।’
কঠিন সময়ে অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে মুশফিকুরের জুড়ি মেলা ভার। দীর্ঘ ১১ বছর মুশফিকুরের সঙ্গে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলে তা উপলদ্ধি করছেন সাকিবÑ ‘মুশফিক ভাই কোনো বাজে শট খেলেননি। যেটা মারার বল ছিল মেরেছেন। যে কোনো চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করার মতো একজন তিনি। তিনি এমন কেউ নন, যাকে উপরে ব্যাট করতে বলা হলে সরে দাঁড়াবে। তার ক্যারিয়ারে এমনই ইতিবাচক দিক রয়েছে। আমার মনে হয় না, তিনি যদি গøাভস রেখে শুধু ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলেন, তা দল এবং তার জন্য সঠিক হবে। একই সঙ্গে ব্যাটিং এবং অধিনায়কত্ব করাটা কঠিন, কিন্তু সে এই দায়িত্ব পালন করতে করতে পছন্দ করেন তিনি।’
হায়দারাবাদ টেস্টে হয়ে যাওয়া তিনদিনে ছড়ায়নি স্পিন আতঙ্ক। অশ্বিন, জাদেজার বোলিং পর্যন্ত নির্বিষ মনে হয়েছে। সে কারণেই ব্যাটিং ফ্রেন্ডলি উইকেটে ফলোঅন থেকে বাঁচার স্বপ্ন দেখছেন সাকিবÑ ‘ভারতের উইকেটে স্পিনারদের যেমন সাহায্য থাকার কতা, তেমনটা এখানে দেখা যাচ্ছে না। উমেষ যাদবের একটা স্পেল ছাড়া পেস বোলিংও তেমন হয়নি। এখনো উইকেটটা ভালো আছে। কাল (আজ) যদি এই পার্টনারশিপ প্রথম সেশন খেলতে পারে এবং আমরা ১০০ থেকে ১২০ রানের মতো করতে পারি, তাহলে ফলোঅন সেভ করার খুব কাছে যেতে পারব আমরা। আপাতত এটাই আমাদের এখন প্রথম লক্ষ্য।

টেস্টে তিন হাজারী ক্লাবে বাংলাদেশের ৪

ব্যাটসম্যান ইনিংস রান গড় ১০০/১০
তামীম ইকবাল ৮৯ ৩৪৬৭ ৩৯.৩৯ ৮/২০
সাকিব আল হাসান ৮৭ ৩২৯৫ ৪১.১৮ ৪/২১
হাবিবুল বাশার ৯৯ ৩০২৬ ৩০.৮৭ ৩/২৪
মুশফিকুর রহিম ৯৫ ৩০০৩* ৩৪.৫১ ৪/১৬
*গতকালের আগ পর্যন্ত

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর