Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫, ১৫ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌
শিরোনাম

অমর একুশে গ্রন্থমেলা বইমেলায় নজরুল

| প্রকাশের সময় : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

এহসান আব্দুল্লাহ : বাংলাদেশের জাতীয় কবি ‘কাজী নজরুল ইসলাম’। মহাকাব্য ব্যতীত বাংলা সাহিত্য অঙ্গনের কোনো শাখা তার আয়ত্ত্বের বাহিরে নেই। দ্রোহ, প্রেম, ক্ষুধা হেন কোনো বিষয় নেই যা তার কাব্যে, গল্পে, প্রবন্ধে অথবা উপন্যাসে উঠে আসেনি। বিদ্রোহী, সাম্যবাণী ইত্যাদি কবিতা দিয়ে তিনি যুগিয়েছেন মানুষের মনের ক্ষুধা, সময়ের আকাক্সক্ষা। বাংলা, উর্দু, হিন্দি, ফার্সি, আরবি ভাষাতে তার ছিল অনবদ্য দখল। শব্দের ঝঙ্কারে তিনি মোহ গড়ে তুলতেন মানুষের মনে। সাহিত্য চর্চা ও পাশাপাশি সাংবাদিকতাতেও তার ছিল এক অসামান্য অবদান। ‘ধূমকেতু’ পত্রিকার সম্পাদনা করে পড়েছেন ব্রিটিশদের রোষানলেও। এক দুর্বার আর অকুতোভয় জীবন ছিল তার নিত্যদিনের সঙ্গী।
তাই নজরুলকে নিয়ে আগ্রহের কোনো শেষ নেই তার ভক্তদের। এখনো তিনি তার ভক্তদের কাছে চিরযুবক এক তরুণ কবিই রয়েছেন। নজরুল নিয়ে অমর একুশে বইমেলায় ‘নজরুল ইন্সটিটিউট’ এর স্টলে গিয়ে দেখা গেল এমন চিত্রের। মেলায় আসা মূলধারার পাঠকরা সুযোগ পেলেই ভিড় করছেন নজরুল ইন্সটিটিউটের স্টলে। অধিকাংশ ক্রেতাই একটি দুটি করে নয় বরং সংকলন অথবা সমগ্র ইত্যাদি কিনে নিচ্ছেন। এখানে দেখা মেলে নজরুলের বিভিন্ন কাব্যগ্রন্থের এবং নজরুল-সংগীত স্বরলিপির ১ম থেকে ৪০তম খ-ের। এছাড়াও নজরুলের উপর লেখা বিভিন্ন গবেষণা গ্রন্থ ও বইয়ের একটি উরেøখযোগ্য সংগ্রহ চোখে পড়ে। আরো পাওয়া যাচ্ছে ‘আদি গ্রামোফোন রেকর্ড’ থেকে ধারণকৃত নজরুলের গাওয়া সংগীতের অডিও ক্যাসেট এবং বিভিন্ন বিখ্যাত নজরুল-সংগীত শিল্পীদের অডিও ক্যাসেট। পাওয়া যাচ্ছে নজরুল-আবৃত্তির ক্যাসেটও। নজরুল ইন্সটিটিউটের স্টলে দেখা মেলে তার উপর নির্মিত তথ্যচিত্র ‘চট্টগ্রামে নজরুল’ এবং নজরুলের বিভিন্ন পোস্টার ও ভিউকার্ড।
স্টলের বিক্রয়কর্মী ও নজরুল ইন্সটিটিউটের বিক্রয় সহকারী মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, আমাদের স্টলে প্রচুর পাঠক প্রতিদিন আসেন। বেচাকেনা সন্তোষজনক। আর পাঠকরা অধিকাংশই বিভিন্ন গবেষণা প্রতিষ্ঠনের সাথে জড়িত অথবা শিক্ষক সমাজের মানুষ। তবে তরুণদের মাঝে নজরুল পাঠকদের সংখ্যা কম না হলেও সন্তোষজনক নয়।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র কামরুল হাসান বলেন, আসলে নজরুল আমাদের চেতনা। সা¤্রাজ্যবাদী ঔপনিবেশিক শাসন ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে এক প্রতিবাদী কন্ঠস্বর ছিলেন নজরুল। আমাদের উচিত বেশি করে নজরুল পাঠ করা যাতে আমরা আমাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাঙালিত্বকে টিকিয়ে রাখতে পারি।
মেলায় গতকাল নতুন বই এসেছে ১০২টি এবং ২৯টি নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।
বইমেলায় ব্যারিস্টার মোকছেদুল ইসলামের দুটি বই একাকিত্ব এবং অবশেষে প্রকাশিত হয়েছে। বই দুটি মেলার বাংলা প্রকাশের স্টলে (স্টল নং-২৮৮, ২৮৯ ও ২৯০) পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া সাহাদাত পারভেজের বই ‘গজারিয়ার ইতিহাস ঐতিহ্য’ প্রকাশিত হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ