Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০১৯, ০১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১২ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

জনশক্তি রফতানি খাতকে শিল্প হিসেবে ঘোষণার দাবি বায়রার

| প্রকাশের সময় : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

জার্নালিস্ট’স ফোরাম অন মাইগ্রেশনের সাথে বায়রা নেতৃবৃন্দ
স্টাফ রিপোর্টার : জনশক্তি রফতানি খাতকে শিল্প হিসেবে ঘোষণার দাবি জনিয়েছেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সিজের (বায়রা) সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য বেনজির আহমেদ। রোববার ইস্কাটনস্থ বায়রা কার্যালয়ে জার্নালিস্টস ফোরাম অন মাইগ্রেশনের (জেএফএম) কার্যনির্বাহী কমিটির মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন। বায়রা সভাপতি বেনজির আহমেদ বলেন, বহির্বিশ্বে শ্রমবাজার সম্প্রসারণে সাংবাদিকদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। তিনি বলেন, জনশক্তি রফতানি খাত জিডিপিতে ১৫ দশমিক ৯ শতাংশ অবদান রাখছে। স্টোকহোল্ডারদের অক্লান্ত পরিশ্রমে অর্থনীতি সমৃদ্ধ হচ্ছে। অথচ অভিবাসন সেক্টর এখনও অবহেলিত। এ ক্ষেত্রে সরকারের নগদ সহয়তা নেই বললেই চলে। অবিলম্বে এ সেক্টরকে শিল্পের মর্যাদা দিয়ে স্টোকহোল্ডারদের উৎসাহিত করতে হবে। বেনজির আহমেদ বলেন, অভিবাসীদের সংকট সমাধান এবং অভিবাসী কর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে গণমাধ্যম কর্মীদের অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। বায়রা সভাপতি আরও বলেন, অনেকে অনাকাক্সিক্ষত ঘটনার জন্য ‘আদম পাচার’ ‘আদম ব্যবসায়ী’ শব্দগুলো ব্যবহার করেন। আমরা মনে করি বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনার জন্য এ সেক্টরের ইতিবাচক ভূমিকা থাকা বড় অংশটি কোনোভাবেই দায়ী নয়। এ বিষয়ে জেএফএম সদস্যদের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের আহ্বানও জানান তিনি। মতবিনিময় সভায় বায়রার মহাসচিব রুহুল আমিন স্বপন, অর্থ সম্পাদক ফখরুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক শামিম আহমেদ চৌধুরী নোমান, জেএফএম সভাপতি মনির হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক রবিউল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য শামসুল ইসলাম, জামাল উদ্দিন, শামসুদ্দিন আহমেদ, রফিকুল ইসলাম আজাদ, রাজু আহমেদ,  শুকুর আলী শুভ, সাজ্জাদ হোসেন, এম এম বাদশা ও সাইদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। বায়রা সভাপতি রুহুল আমিন স্বপন বলেন, গত বছর সাড়ে ৭ লাখ কর্মী বিদেশে চাকুরি লাভ করেছে। বিদেশে দক্ষ কর্মীর চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। তিনি বলেন, মালয়েশিয়ায় জি টু জি প্লাস প্রক্রিয়ায় অনলাইনের মাধ্যমে শিগগিরই কর্মী যাওয়া শুরু হবে। দেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের বিদেশে চাকুরি নিয়ে যাওয়ার সুযোগ নেই বলেও তিনি উল্লেখ করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ