Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৭, ১৩ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ভ্রাম্যমাণ আদালতে কারাদন্ড দেয়ায় পরীক্ষা দেয়া অনিশ্চিত

| প্রকাশের সময় : ৭ মার্চ, ২০১৭, ১২:০০ এএম

নীলফামারী জেলা সংবাদদাতা : স্যার আমি তাস চিনি না, তাস খেলার প্রশ্নেই উঠেনা। আমাকে ছেড়ে দিন স্যার, আমার পরীক্ষা রয়েছে। এসব কথা বলার পরও পরীক্ষার্থী হাবিবুল্লাহর ২০ দিন কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক জলঢাকা উপজেলা নির্বাহী অফিসার। শুধু তাই নয় উচ্চ আদালতে থেকে মুক্তি পেতে মামলার জাবেদা কপি পাওয়ার আশায় দরখাস্ত করলেও তা দিতে গড়িমসি করছে উক্ত ইউএনও। ফলে পরীক্ষা দেয়া অনিশ্চিত পড়েছে হাবিবুল্লাহর। এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ ফেব্রæয়ারি নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার খুটামারা ইউনিয়নের হরিশ্চচন্দ্র পাঠ এলাকায় হিন্দু সম্প্রদায়ের শিবরাত্রী পূজা বসে। এ উপলক্ষে সেখানে জুয়ার আসর বসলে জলঢাকা থানার পুলিশ রাতে অভিযান চালিয়ে ৫ জন জুয়ারীকে আটক করে। পুলিশ ভ্যানে করে তাদেরকে থানায় নিয়ে আসার সময় হরিশ্চচন্দ্র পাঠের রাস্তা থেকে পথচারী হাবিবুল্লাহকে জুয়া খেলার অভিযোগে আটক করে তাকেও থানায় নিয়ে আসে। পরদিন ২৬ ফেব্রæয়ারি তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে হাবিবুল্লাহ নিজেকে নির্দোষ দাবি করে। এরপরও বিচারক জলঢাকা উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রত্যেককে ২০ দিনের করে জেল প্রদান করেন। হাবিবুল্লাহ নীলফামারী সদর উপজেলার রামনগর ইউনিয়নের বাহালীপাড়ার মাদরাসা শিক্ষক মাওলানা গোলাম মোস্তফার ছেলে। সে দাখিল পাশ করার পর ৪ বছর মেয়াদে কৃষি ডিপ্লোমা পাশ করে ৩ বছর মেয়াদী বিএজিএড কোর্সে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে রংপুর তাজহাটের পরীক্ষার্থী এবং আগামী ১০ মার্চ তার ইংরেজি পরীক্ষা রয়েছে। পরীক্ষায় অংশ নিতে মুক্তি পাওয়ার জন্য উচ্চ আদালতে যাওয়ার জন্য জাবেদা কপির আবেদন করে ২৬ ফেব্রæয়ারি। দরখাস্তের পরিপ্রেক্ষিতে নীলফামারী জেলা কালেক্টরেট রেকর্ড রুম শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৫৪/১৭নং মামলার নথি প্রেরণের জন্য জলঢাকা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট আবেদনটি পাঠানো হয়। জারিকারক আজগার আলী ২৭ ফেব্রæয়ারি এ চিঠি গ্রহণ করলেও গতকাল সোমবার পর্যন্ত নথি পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে আজগার আলীর সাথে কথা বললে তিনি ইউএনও’র ডাক ফাইলে দরখাস্ত আছে বলে জানান। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, নির্বাচনী কাজে ব্যস্ত রয়েছি। আগামীকাল নথি পাঠানো হবে।



 

Show all comments
  • Nur- Muhammad ৭ মার্চ, ২০১৭, ১২:১৬ এএম says : 0
    ছেলেটির পরীক্ষা দেওয়ার ব্যবস্হা করা হউক। নির্দোষ হলে ইউএনও র বিরুদ্ধ ব্যবস্হা নেওয়া হউক।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন