Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯, ০৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

এশিয়ান বংশোদ্ভূত যৌন নিপীড়নকারীদের নাগরিকত্ব বাতিল করবে ব্রিটেন

প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : সন্ত্রাসীদের ব্রিটেনছাড়া করার ঘোষণা দেওয়ার পর এবার যৌন নিপীড়নকারীদের বিরুদ্ধেও অনুরূপ ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে দেশটি। তবে ওই নিপীড়নকারীকে হতে হবে এশীয় বংশোদ্ভূত। বলা হয়েছে, এশিয়ান বংশোদ্ভূত যৌন নিপীড়নকারীদের যুক্তরাজ্যের নাগরিকত্ব কেড়ে নেয়া হবে। এমনকি সাজা শেষে তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এমন পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে। হোয়াইট হল সূত্র জানিয়েছে, ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তেরেসা মে তার বিশেষ আইনি ক্ষমতার পরিধি আরও বিস্তৃত করতে চান। ওই ক্ষমতা অনুযায়ী, একাধিক নাগরিকত্বধারী মারাত্মক অপরাধীদের ব্রিটিশ নাগরিকত্ব কেড়ে নিতে পারে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এখন পর্যন্ত মূলত, সন্ত্রাসী ও সন্ত্রাসীদের প্রতি সহানুভূতিশীল ব্যক্তিদের পাসপোর্ট কেড়ে নেয়ার ক্ষেত্রে এ ক্ষমতা প্রয়োগ করা হয়েছে। তবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ একাধিক সূত্র জানিয়েছে, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বহু শহরে যৌন নির্যাতনকারী বিভিন্ন এশিয়ান গ্যাং-এর তৎপরতা উদ্ঘাটিত হয়েছে। ফলে পাসপোর্ট কেড়ে নেয়া ও সম্ভাব্য প্রত্যাবর্তন বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। গত বুধবার রোথেরহ্যামে ধর্ষণ, বলপূর্বক পতিতাবৃত্তি, আক্রমণসহ বিভিন্ন অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হয় পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশদের একটি গ্যাং। এখন তাদের সাজা দেয়া হয়েছে। এদের ব্রিটিশ নাগরিকত্ব কেড়ে নেয়া হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এরপর তাদের পাকিস্তানে ফেরত পাঠানোর আইনি কার্যক্রম শুরু করাও হতে পারে। উত্তর ও মধ্য ইংল্যান্ডজুড়ে এশিয়ান পুরুষ গ্যাংগুলোর হাতে শ্বেতাঙ্গ নারীদের নির্যাতনের ঘটনায় বিচার চলছে। আরও বিচার শিগগিরই শুরু হবে। দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন