Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

ডায়াবেটিসে প্রতি ৬ সেকেন্ডে একজনের মৃত্যু

| প্রকাশের সময় : ১৪ মার্চ, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : প্রতি ৬ সেকেন্ডে বিশ্বে একজন মানুষ ডায়াবেটিসের কারণে মারা যান। বাংলাদেশে বর্তমানে ৭১ লাখ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। ২০৪০ সালে এই সংখ্যা ১৩ দশমিক ৬ মিলিয়ন বা এক কোটি ৩৬ লাখ ছাড়িয়ে যাবে। গতকাল রাজধানীর সেগুনবাগিচা বারডেম মাদার এন্ড চাইল্ড হাসপাতাল মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির অন্তর্গত ‘চেজিং ডায়াবেটিস ইন চিেিল্ড্রন (সিডিআইসি)’ ও নভো নরডিস্ক যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ডা. এ কে আজাদ খান, মহাসচিব মো. সায়েফ উদ্দিন, নভো নরডিস্কের কর্পোরেট ভাইস প্রেসিডেন্ট পিটার উলভস্কজোল্ড, ম্যানেজিং ডিরেক্টর আনান্দ শেঠী, হেড অব মার্কেটিং ডা. মোহাম্মদ সাইফুল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে ডায়াবেটিস রোগীদের শতকরা ৩ জন টাইপ-১ ডায়াবেটিস রোগী বা জন্মগতভাবে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। অনেক বাবা-মা এই বিষয়টি মেনে নিতে পারেন না। টাইপ-১ ডায়াবেটিসে আক্রান্তদের বেশিরভাগই আর্থিকভাবে অপেক্ষাকৃত অস্বচ্ছল এবং গ্রাম এলাকার। তবে টাইপ-২ শিশুদের মধ্যে অপেক্ষাকৃত ধনী ও শহরের শিশুদের সংখ্যাই বেশি। বক্তারা বলেন, টাইপ-১ ডায়াবেটিসের শিশু বা পিতা-মাতা দায়ী নয়। জেনেটিকও পরিবেশগত কারণে জন্মগতভাবে শিশুরা ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়। তারা বলেন, সঠিকভাবে চিকিৎসা গ্রহণ করলে টাইপ-১ ডায়াবেটিস রোগীরাও সুস্থভাবে জীবনযাপন করতে পারে।
এসময় ৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে সঠিকভাবে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করার কারণে নভো নরডিস্ক এর পক্ষ থেকে শুভ, ইথার ও নাঈম নামের তিন শিশুকে উপহার প্রদান করা হয়। এসব শিশুরা টাইপ-১ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলেও সঠিকভাবে চিকিৎসা গ্রহণের ফলে তারা সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবনযাপন করছে ও লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর