Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬, ১১ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

তথ্য গোপনের মামলা কুড়িগ্রামের উলিপুর পৌর মেয়রকে আদালতের সমন

প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা : কুড়িগ্রামের উলিপুর পৌরসভার নব-নির্বাচিত মেয়রকে হলফনামায় তথ্য গোপনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আদালত সমন জারি করেছে। নির্বাচনি ট্রাইবুনাল কুড়িগ্রামের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ ১নং আদালতে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা প্রার্থী সাজাদুর রহমান মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ২৭ মার্চ বিবাদীকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, পৌর বিএনপি নেতা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী তারিক আবুল আলা চৌধুরী গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত উলিপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী হওয়ার সময় দাখিলকৃত হলফনামায় নিজেকে স্ব-শিক্ষিত উল্লেখ করেন। প্রকৃত অর্থে তিনি উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড রাজশাহীর অধীন ১৯৭০ সালে রাজশাহী ক্যাডেট কলেজ থেকে এসএসসি ও ১৯৭২ সালে এইচএসসি পাশ করেন।
স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন ২০১০ সালের ১৯-এর উপধারা (২)-এর (ন) মোতাবেক কোন প্রার্থী মনোনয়নপত্রের সাথে দাখিলকৃত হলফনামায় কোন অসত্য তথ্য প্রদান করলে বা ইচ্ছাকৃতভাবে কোন তথ্য গোপন করলে তিনি মেয়র বা কাউন্সিলর পদে থাকার যোগ্য হবেন না। অভিযোগকারি সংশ্লিষ্ট ক্যাডেট কলেজ থেকে তারিক আবুল আলা চৌধুরীর গোপন তথ্য এসএসসি ও এইচএসসি পাশের প্রয়োজনীয় প্রমানাদি আদালতের নজরে আনেন। বিচারক বিষয়টি শুনানি শেষে তথ্য গোপনকারি মেয়র তারিক আবুল আলা চৌধুরী, নির্বাচন কমিশনার, রিটার্নিং অফিসারসহ প্রতিদ্বন্দী অপর ৫ মেয়র প্রার্থীকে ২৭ মার্চ আদালতে হাজির হয়ে জবাব দেয়ার জন্য সমন জারি করেন।
অন্যদিকে, একই পৌরসভার নির্বাচিত কাউন্সিলর মোঃ মোস্তাফিজার রহমান মন্ডলের বিরুদ্ধে হলফনামায় তথ্য গোপনের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন প্রতিদ্বন্দ্বী কাউন্সিলর প্রার্থী রোকনুদ্দৌলা মনা। আদালতে ফৌজদারি মামলা চলমান থাকলেও হলফনামায় মোস্তাফিজার রহমান তা গোপন রাখেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন