Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ জুলাই ২০১৭, ০৮ শ্রাবণ, ১৪২৪, ২৮ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী

চীন-সউদী সম্পর্কে নতুন মোড় ৬৫ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি

বেইজিংয়ে বাদশাহ সালমান-শি জিনপিং বৈঠক

| প্রকাশের সময় : ১৮ মার্চ, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : সউদী আরবের সঙ্গে ৬৫ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি করেছে চীন। এশিয়া সফররত সউদী বাদশা সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সউদ এখন চীনে রয়েছেন। বেইজিংয়ে শি জিনপিংয়ের সঙ্গে সাক্ষাতের পর উভয়ে ওই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।
চীনের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ঝাং মিংয়ের বরাত দিয়ে রাশিয়ান বার্তা সংস্থা রাশিয়ান টাইমস (আরটি) জানিয়েছে, শক্তি সম্পদ থেকে মহাকাশ পর্যন্ত সবকিছুতেই সহযোগিতার জন্য ওই সমঝোতা হয়েছে।
প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী ঝাং মিং বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও বাদশাহ সালমান পুরনো বন্ধু।’ তিনি আরো বলেন, ‘চীন ও সউদী আরবের মধ্যকার সহযোগিতামূলক কার্যক্রম এরই মধ্যে অনেক বড় কিছু অর্জন করেছে এবং সামনে আছে অনেক বড় সম্ভাবনা।’
নিজ দেশে বিনিয়োগ সুযোগ ও বাণিজ্য বাড়াতেই বাদশাহ সালমান সাম্প্রতিক সফরে বের হয়েছেন। এশিয়ার দেশগুলোর জন্য সউদী আরবের তেল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দেশটি চীনের তেলের বাজারও বাড়াতে চায়। চীনে তেল রপ্তানির ক্ষেত্রে গত বছরই রাশিয়ার চেয়ে পেছনে পড়ে যায় সউদী।
এদিকে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং জানিয়েছেন, সউদী বাদশার এ সফর চীনের সঙ্গে সউদীর সম্পর্ক আরো জোরদার করবে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, চীন মধ্যপ্রাচ্য সঙ্কটে নাক গলায় না। আর এ কারণেই মধ্যপ্রাচ্যের কাছেও চীন বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি মুসলিম প্রধান দেশের কূটনীতিক জানিয়েছেন, মধ্যপ্রাচ্যে চীনের ভূমিকা কেবলই একজন ‘সৎ ক্রেতা’ হিসেবে। তিনি বলেন, চীন কোনো পক্ষ  নিবে না এবং সেটা প্রশংসনীয়।
বাদশাহ সালমানের সঙ্গে চাং দ্য চিয়াং-এর সাক্ষাৎ
এদিকে চীনের জাতীয় গণকংগ্রেসের স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান চাং দ্য চিয়াং গতকাল (শুক্রবার) বেইজিংয়ের মহা গণভবনে সউদী বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল অজিজ আল সউদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের জন্য ধন্যবাদ জানান সউদী বাদশাহ। বৈঠকে চাং দ্য চিয়াং বলেন, চীন এবং সউদী আরবের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ২৭ বছরে দু’দেশের সম্পর্কে যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে। চীন সউদী আরবের সঙ্গে বিভিন্ন ক্ষেত্রে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নত করতে চায়। তাছাড়া, চীনের জাতীয় গণকংগ্রেসের স্থায়ী কমিটি সউদী শরিয়াহ কাউন্সিলের সঙ্গে বিভিন্ন পর্যায়ে বন্ধুত্বপূর্ণ বিনিময় জোরদার করা এবং দু’দেশের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তগুলো বাস্তবায়ন করতে চায় বলে উল্লেখ করেন তিনি। সূত্র : সিআরআই, আরটি ও রয়টার্স।

 


Show all comments
  • Kamal ১৮ মার্চ, ২০১৭, ১১:১৬ এএম says : 1
    very good .
    Total Reply(0) Reply
  • Nanny chowhan ১৮ মার্চ, ২০১৭, ১:৪০ পিএম says : 0
    Very good,well come China Saudi friendship
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।