Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭, ১১ চৈত্র, ১৪২৩, ২৫ জামাদিউস সানী ১৪৩৮ হিজরী।

ভারতের গ্রাস কেড়ে নিল অস্ট্রেলিয়া

| প্রকাশের সময় : ২১ মার্চ, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : ‘ব্যাপারটা ভীতিকর ছিল’ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথের প্রথম বাক্য এটি। ভিতিকর-ই তো! সাত সকালে ব্যাট করতে এসেই ফেরেন দলের প্রধান ভরসা স্টিভেন স্মিথ ও ম্যাট রেনশ। সেই ভীতি দূর হয় মূলত পিটার হ্যান্ডসকম্ব ও শন মার্শের ব্যাটে। দুজনে মিলে খেলেছেন প্রায় চারশ বল। তাতে প্রায় অর্ধযুগ পর প্রথম ইনিংসে পিছিয়ে থেকেও ভারতের মাটিতে টেস্ট ড্র করে কোন দল। সিরিজও বেঁচে রইল তাতে। টিকে রইল ধর্মশালায় অনুষ্ঠেয় চতুর্থ ও শেষ টেস্টের রোমাঞ্চও।
পুনে টেস্টে হারের পর বেঙ্গলুরুতে কোহলির দলের দুর্দান্ত জয়। এবার রাঁচিতে ম্যাচ ড্র হলেও ভারতের আধিপত্য ছিল স্পষ্ট। স্মিথের দেয়া ভাস্যের একই মঞ্চে কোহলির কন্ঠে তাই প্রথমেই স্বস্তির সুর, ‘আমরা নিজেদের ভালোভাবে ফিরে পেয়েছি। টস হারের পর ব্যাপারটা মোটেও সহজ ছিল না।’
রাঁচির শেষ দিনটা অস্ট্রেলিয়ার জন্য ভীতিকরই ছিল বটে। হাতে আট উইকেট ও ১২৯ রানে পিছিয়ে দিন শুরু করে সকালের সেশনে চার বলের ব্যবধানে ইশান্ত শর্মার বলে ম্যাট রেনশ ও রবীন্দ্র জাদেজার বলে ফেরেন স্মিথ। ইনিংস হার এড়াতে তখনও করতে হবে ৮৯ রান। পরাজয় চোখ রাঙাচ্ছে। এমন সময় আশ্বিন-জাদেজাদের সামনে দেয়াল হয় দাঁড়ান হ্যান্ডসকম্ব ও মার্শ। পঞ্চম উইকেটে গড়েন ১২৪ রানের জুটি। তার চেয়েও বড় হিসাব দু’জনের প্রতিরোধটা ছিল ৬২ ওভারের। দুপুর গড়িয়ে ম্যাচ তখন শেষ বিকেলে। মার্শকে ফেরিয়ে এসময় জুটি আলাদা করেন জাদেজা। অস্ট্রেলিয়াও ঘাটতি মিটিয়ে এগিয়ে ৩ রানে। অজি মিডিলঅর্ডারের ৫৩ রানের ধৈর্যশীল ইনিংসটি ছিল ১৯৭ বলের। আগের দিন ওয়ার্নার ও লায়নের পর এদিন মার্শের আগে স্মিথকেও ফেরান জাদেজা। এ নিয়ে সিরিজে তৃতীয় বারের মত স্মিথকে আউট করলেন বঁ-হাতি অলরাউন্ডার। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নেয়া জাদেজা এবার নেন ৪টি।
র‌্যাংকিংয়ের এক নম্বর বোলার আশ্বিনের কাছ থেকে একটু সহযোগীতা পেলে ম্যাচের ফলটা পক্ষে নিতে পারত পারত। ৩০ ওভার হাত ঘুরিয়ে শুধুমাত্র ম্যাক্সওয়েলের উইকেটটি নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় আশ্বিনকে। ৬ উইকেটে ২০৪ রানের সময় ভারত অধিনায়কের প্রস্তাবে ড্র মেনে নেন স্মিথ। ২০০ বলের ইনিংসে ৭২ রানে অপরাজিত ছিলেন হ্যান্ডসকম্ব, ওয়েড ৯ রানে। ঘাটতি পূরন করে অস্ট্রেলিয়ার তখন ৫২ রানে এগিয়ে।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ