Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

নষ্ট হচ্ছে কোটি কোটি টাকা মূল্যের চিকিৎসা সরঞ্জাম

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল

| প্রকাশের সময় : ২২ মার্চ, ২০১৭, ১২:০০ এএম

আবদুল ওয়াজেদ কচি, সাতক্ষীরা থেকে : সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাবুলিয়া গ্রামের সুরত আলী হাসপাতাল মোড়ের একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ক্যাশ কাউন্টারে দাঁড়িয়ে দেন-দরবার করছিলেন পরীক্ষা-নিরীক্ষার বিল কমানোর জন্য। কিন্তু ডায়াগনস্টিক সেন্টার কর্তৃপক্ষ টাকা কমাতে নারাজ। একটু এগিয়ে গিয়ে জানতে চাইলে সুরত আলী বলেন, ‘ভাই যে পরীক্ষা সদর হাসপাতালে ১২০০ টাকা। সেই পরীক্ষা এখানে ২৫০০ টাকা। একটু কম নিতে বলছি, কিন্তু নিচ্ছে না।’ কিন্তু সদর হাসপাতালে পরীক্ষা করালেন না কেন- এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘সদর হাসপাতালের মেশিন নষ্ট। তাই ডাক্তার সাহেব বাইরে থেকে পরীক্ষাগুলো করাতে বলেছেন। কিন্তু এত টাকা পাব কোথায়?’ সুরত আলীর কথার সূত্র ধরে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে খোঁজখবর নিয়ে জানা গেছে, প্রায় দুই বছর ধরে নষ্ট হয়ে রয়েছে এই হাসপাতালের ইটিটি মেশিন দুটি। প্রায় একই সময় ধরে নষ্ট ইকো কার্ডিওগ্রাম দুটিও। এছাড়া চারটি আল্ট্রাসনো মেশিনের মধ্যে তিনটি, ১৮টি সাকার মেশিনের মধ্যে ১৩টি, ছয়টি ইসিজির মধ্যে তিনটি, পাঁচটি আনেসথেশিয়া মেশিনের মধ্যে চারটি, চারটি কার্ডিয়াক মনিটরের মধ্যে দুটি, ছয়টি এক্স-রে মেশিনের মধ্যে চারটি, তিনটি অ্যাম্বুলেন্সের মধ্যে একটি, সিসিইউ’র চারটি এসির মধ্যে দুটি ও বিদ্যমান একটি বায়ো কেমিস্ট অ্যানালাইজার দীর্ঘদিন ধরে নষ্ট হয়ে পড়ে আছে। আর এভাবেই দীর্ঘদিন মেরামতের অভাবে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নষ্ট হচ্ছে কোটি কোটি টাকা মূল্যের চিকিৎসা সরঞ্জাম। এতে বাইরে থেকে পরীক্ষা- নিরীক্ষা করাতে একদিকে যেমন সাধারণ রোগীদের দুই থেকে তিনগুণ বেশি অর্থ ব্যয় করতে হচ্ছে, তেমনি সংশ্লিষ্টদের অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে সরকারি সম্পদ। এ প্রসঙ্গে সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির সভাপতি আনিছুর রহিম সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করে বলেন, সাধারণ মানুষকে পায়ে পায়ে হয়রানি ও দুর্ভোগ পোহাতে হয়। অথচ কর্তৃপক্ষ একুট আন্তরিক হলে চিকিৎসা সরঞ্জামগুলো এতদিন নষ্ট হয়ে পড়ে থাকত না। সাধারণ মানুষকেও হয়রানি-দুর্ভোগের পাশাপাশি অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় করতে হতো না। এ ব্যাপারে সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ও সদর হাসপাতালের তত্ত¡াবধায়ক ডা. তহিদুর রহমান বলেন, আমি ১৩ মার্চ এখানে যোগদান করেছি। এসেই জানার চেষ্টা করেছিÑ কোথায় কি সমস্যা রয়েছে। চলতি মাসেই বিদ্যমান সমস্যা সমাধানে ঊর্ধŸতন কর্তৃপক্ষের দ্বারস্থ হব। আশা করি, স্বাস্থ্যসেবায় সাতক্ষীরা এগিয়ে যাবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন