Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সার্কে সাত বছরের ফি বকেয়া পাকিস্তানের

| প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা (সার্ক)-এ সাত বছরের ফি বকেয়া পড়েছে পাকিস্তানের। বকেয়ার পরিমাণ ৭৮ লাখ ৫০ হাজার ডলার। সব দেশ বকেয়া পরিশোধ করলেও পাকিস্তান করেনি। সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি খাতে প্রদেয় এই টাকা অবিলম্বে মেটাতে পাকিস্তানকে তাগাদা দিয়েছে অন্য সব সদস্য দেশ। ফি না মেটালে প্রকল্পটি থেকে বহিষ্কারের মুখে পড়তে হতে পারে ইসলামাবাদকে, এমন ইঙ্গিতও দিয়ে দেয়া হয়েছে সার্কের পক্ষ থেকে।
দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর শিক্ষার্থীদের সামনে উন্নত মানের উচ্চশিক্ষার সুযোগ আরও বাড়াতে সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে সার্ক দেশগুলো। ২০১০ সালে দিল্লীতে অস্থায়ী ক্যাম্পাস চালুও হয়ে গিয়েছে। কিন্তু পাকিস্তান এই প্রকল্পের অংশীদার হয়েও তাদের আর্থিক দায়বদ্ধতা পালন করেনি।
সার্ক সূত্রের খবর, বকেয়া ফি মিটিয়ে দেয়ার জন্য অনেক বারই ইসলামাবাদকে তাগাদা দেয়া হয়েছে। কিন্তু পাকিস্তান টালবাহানা চালিয়ে যাচ্ছে। চলতি বছরের ফেব্রæয়ারিতেই কাঠমান্ডুতে বৈঠক হয়েছে সার্কের প্রোগ্রামিং কমিটির সেখানেও সতর্কবার্তা উচ্চারিত হয়েছে পাকিস্তানের জন্য।
২০১৬’র ২৮ নভেম্বর ঢাকায় সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটির গভর্নিং বডির নবম বৈঠকেও পাকিস্তানের বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তারপরে ২০১৭’র ফেব্রæয়ারির শুরুর দিকে কাঠমান্ডুতে সার্ক প্রোগ্রামিং কমিটির ৫৩তম বৈঠকেও পাকিস্তানের প্রতিশ্রæতি ভঙ্গের বিষয়টি নিয়ে কথা হয়েছে এবং পাকিস্তানকে সতর্কবার্তা দেয়া হয়েছে। ভারত ও সার্কের অন্য সদস্যরা পাকিস্তানকে জানিয়ে দিয়েছে, কয়েক মাসের মধ্যে বকেয়া না মেটালে সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি প্রকল্প থেকে পাকিস্তানকে বাদ দেয়ার কথাই ভাবতে হবে। সূত্র : এএফপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ