Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

কেন্দ্রীয় ব্যাংকে ‘চায়ের কেটলি থেকে আগুন’

তদন্তে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ

| প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০১৭, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার  : বৈদ্যুতিক চায়ের কেটলি শর্ট সার্কিট হওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনের ১৪ তলার কক্ষটিতে আগুন  লেগেছে। এমনই ধারণা করছে ব্যাংক ভবনের অগ্নিকান্ডে গঠিত ফায়ার সার্ভিসের পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি। গতকাল শনিবার তদন্ত কমিটি দ্বিতীয়বারের মতো ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। দুপুর ১২টায় ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক (ঢাকা) সমরেন্দ্র নাথ বিশ্বাসের নেতৃত্বে পৃথক দুটি গাড়িতে চড়ে তারা আসেন। এদিকে গতকাল অগ্নিকান্ডের ঘটনা তদন্তে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে মতিঝিল থানা পুলিশ। ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ফায়ার সার্ভিসের উপ পরিচালক (ঢাকা) সমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনের আগুনের ঘটনা খুবই সামান্য ঘটনা। শুধু শুধুই এটিকে অনেক বড় করে দেখানো হচ্ছে। চায়ের কেটলি থেকে শর্ট সার্কিট হয়ে এই আগুন লেগে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। তিনি আরও বলেন, আগুনে তেমন কোনো ক্ষতিই হয়নি। একটি কম্পিউটার ছাড়া অন্যকিছু তেমন পোড়েনি। এমনকি কক্ষের চেয়ারে থাকা তোয়ালেও অক্ষত রয়েছে। কক্ষটিতে ধোঁয়া আটকে যাওয়ায় হঠাৎ করে অনেক ধোঁয়া হয়েছিল। আগুন তেমন বড় ছিল না। পাঁচদিনের আগেই তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন জমা দিতে পারবে বলেও আশা প্রকাশ করেন ফায়ার সার্ভিসের এই উপ-পরিচালক।
ব্যাংক ভবনের আগুন নাশকতা কিনা, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে এ তদন্ত কমিটির প্রধান বলেন, আমরা ঘটনাস্থল ঘুরে দেখেছি। এরপর ব্যাংকের বিভিন্ন লোকজনের সঙ্গে কথা বলব। নাশকতার কোনো প্রমাণ পাওয়া গেলে তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হবে। এর আগে, দুপুরে বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনের অগ্নিকান্ডে গঠিত পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি দ্বিতীয়বারের মতো ঘটনাস্থলে যায়। ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক (ঢাকা) সমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের নেতৃত্বে তদন্ত কমিটি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকে অগ্নিকান্ডের ঘটনা তদন্তে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে মতিঝিল থানা পুলিশ। গতকাল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মতিঝিল থানার কয়েকজন পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে যান। গত শুক্রবার সকালে বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক নুরুল ইসলাম মতিঝিল থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। এ বিষয়ে তদন্ত করার জন্য পুলিশ কর্মকর্তারা বাংলাদেশ ব্যাংকে যান বলে থানা সূত্রে জানা গেছে।
উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার রাত ৯টা ২০ মিনিটের দিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৩০তলা ভবনের ১৪ তলায় বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিট কাজ করে রাত ১০টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুন পুরোপুরি নেভানো হয় রাত ১০টা ৩৪ মিনিটে। আগুন লাগার ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতি ও কারণ তদন্তে বাংলাদেশ ব্যাংক নির্বাহী পরিচালক আহমেদ জামালকে প্রধান করে তিন সদস্যের কমিটি করে। কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক লে. কর্নেল (অব.) মো. মাহমুদুল হক খান চৌধুরী ও তফাজ্জল হোসেন। অপরদিকে ফায়ার সার্ভিসও পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে। দুই কমিটিকেই আগামী ২৮ মার্চ তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।
পুলিশ তদন্ত দলের বাংলাদেশ ব্যাংক পরিদর্শন
বাংলাদেশ ব্যাংকে অগ্নিকান্ডের ঘটনা তদন্তে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে মতিঝিল থানা পুলিশ। গতকাল (শনিবার) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মতিঝিল থানার কয়েকজন পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে যান।
এর আগে শুক্রবার সকালে বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক নুরুল ইসলাম মতিঝিল থানায় সাধারণ ডায়রি (জিডি) করেন। এ বিষয়ে তদন্ত করার জন্য পুলিশ কর্মকর্তারা বাংলাদেশ ব্যাংকে যান বলে থানা সূত্রে জানা গেছে।
মতিঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইব্রাহিম জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকে আগুন লাগার ঘটনার জিডি নং-১৫৭৩।
উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৩০ তলা ভবনের ১৪ তলায় বৈদেশিক মুদ্রা নীতি বিভাগে আগুন লাগে। পরে ফায়ার সার্ভিসের ১৩টি ইউনিট ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুন লাগার ঘটনায় রাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে আগুনে ক্ষয়ক্ষতি ও কারণ জানতে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে। কমিটির প্রধান ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক আহমেদ জামালসহ অপর দুই সদস্য হলেন- ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক লে. কর্নেল (অব.) মো. মাহমুদুল হক খান চৌধুরী ও তফাজ্জল হোসেন। কমিটি আগামী ২৮ মার্চ তদন্ত  প্রতিবেদন জমা দেবে বলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।
একই ঘটনায় আলাদা করে ফায়ার সার্ভিস কর্তৃক আলাদা একটি পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে। ঢাকার ডেপুটি ডিরেক্টর (ডিডি) সমেরন্দ্র নাথ বিশ্বাসকে প্রধান করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। আগামী ৫ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।



 

Show all comments
  • DINA BONDU SAHA ২৬ মার্চ, ২০১৭, ১০:৪৮ পিএম says : 0
    Thanks to Daily INQILAB Comitte for Nice iNFORMATION
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কেন্দ্রীয় ব্যাংক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ