Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাত্রী কল্যাণ সমিতির স্মারকলিপি চট্টগ্রামে গণপরিবহনে নৈরাজ্য রোধে হস্তক্ষেপ কামনা

| প্রকাশের সময় : ২৯ মার্চ, ২০১৭, ১২:০০ এএম

চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রামে গণপরিবহনে বিরাজমান নৈরাজ্য রোধে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে যাত্রী কল্যাণ সমিতি। গতকাল (মঙ্গলবার) চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে দেয়া এক স্মারকলিপিতে এ দাবি জানানো হয়।
জেলা প্রশাসক মো. সামসুল আরেফিনের কাছে এই স্মারকলিপি তুলে দেন সংগঠনের কেন্দ্রিয় কমিটির মহাসচিব ও চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী। এসময় সংগঠনের চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটি, মহানগর কমিটি ও জেলা কমিটির বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। স্বারকলিপিতে বলা হয়, নগরীতে চলাচলরত গণপরিবহন সমূহের পাশাপাশি নগর থেকে জেলার বিভিন্ন উপজেলায় যাতায়াতকারী যানবাহন সমূহে সন্ধ্যাকালে এবং বৃহস্পতিবার ও সরকারি ছুটির পূর্বদিবসে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার তিন থেকে পাঁচগুণ পর্যন্ত অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। গণপরিবহর সঙ্কটে নাকাল অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে, বাসের সংখ্যা ক্রমাগতভাবে হ্রাস পাচ্ছে, ছোট ছোট যানবাহন বিশেষ করে টেম্পু ও অটোরিক্সার সংখ্যা অস্বাভাবিকহারে বাড়ছে। এতে যানজট ও জনজট বাড়ছে। এতে বলা হয়, চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ মোটরযান আইনের বিভিন্ন ধারায় প্রতিদিন প্রায় ৫-৬শ’ মামলা করে থাকে। এসব মামলায় মোটরযান চালক ও মালিকদের কাছ থেকে প্রতিমাসে প্রায় আড়াই থেকে ৩ কোটি টাকা জরিমানা আদায় করা হলেও সিংহভাগ অর্থলুটপাট হচ্ছে। গ্রাহকদের ট্রাফিক আইনের সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান এবং প্রসিকিউশন শাখায় সচ্ছতা ও জবাবদিহিতা না থাকায় গ্রাহকদের যথাযথ মেমো বা রশিদ না দিয়ে নগদ টাকা আদায় করা হচ্ছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ