Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৬ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

সুন্নিয়ত প্রতিষ্ঠায় দরসুল কোরআন মাহফিলের ভূমিকা অনস্বীকার্য

প্রকাশের সময় : ১ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

চট্টগ্রাম ব্যুরো : আগামী ৪ ও ৫ মার্চ জমিয়তুল ফালাহ ময়দানে ২ দিনব্যাপী অনুষ্ঠেয় দরসুল কোরআন মাহফিল উপলক্ষে এক মতবিনিময় সভা গতকাল পটিয়া উপজেলাধীন শান্তিরহাটস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ১৩তম দরসুল কোরআন মাহফিল প্রস্তুতি কমিটির যুগ্ম আহবায়ক এ এম মঈনউদ্দিন চৌধুরী হালিম বলেন, ইসলামের আলখেল্লা পরিহিত হয়ে একটি দুষ্টচক্র পবিত্র কোরআন-সুন্নাহর সঠিক মর্মবাণীর বিকৃতির মাধ্যমে গোটা মুসলিম কমিউনিটিতে পারস্পরিক বিভাজন জিইয়ে রেখেছে। জাতীয় জীবনে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ জীবন বিধান মহান ঐশীগ্রন্থ পবিত্র আল কোরআনের সঠিক চর্চা ও যথাযথ অনুশীলনের মাধ্যমে পথভ্রষ্ট মানুষদের সঠিক পথের দিশা দানে দরসুল কোরআন মাহফিল ইসলামী সংস্কৃতির এক অনন্য সংযোজন। সত্যিকারের অর্থে কোরআন-সুন্নাহর বিকৃতি রোধ ও সুন্নীয়ত প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে দরসুল কোরান মাহফিলের ভূমিকা অনস্বীকার্য।
পটিয়া উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত, ইসলামী ছাত্রসেনা ও আঞ্জুমানে খুদ্দামুল মুসলেমীনের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন পটিয়া উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের সদস্য সচিব মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন চৌধুরী। পটিয়া উপজেলা বাংলাদেশ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের নেতা মুহাম্মদ নাসির উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন মুহাম্মদ হারিছ উদ্দিন দৌলতী, মুহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী, মুহাম্মদ আবদুল মামুন, মুহাম্মদ এরশাদ, মুহাম্মদ আবদুল করিম ও মুহাম্মদ হাছান প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সুন্নিয়ত প্রতিষ্ঠায় দরসুল কোরআন মাহফিলের ভূমিকা অনস্বীকার্য
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ