Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী

জয়ে সেঞ্চুরি উদযাপন পাকিস্তানের

প্রকাশের সময় : ১ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১:১৬ এএম, ১ মার্চ, ২০১৬

আরব আমিরাত : ১২৯/৩ (২০ ওভারে)
পাকিস্তান : ১৩১/৩ (২০ ওভারে)
ফল : পাকিস্তান ৭ উইকেটে জয়ী।
বিশেষ সংবাদদাতা : সংক্ষিপ্ত ভার্সনের ক্রিকেটে পাকিস্তানের অভিষেকটা জয় দিয়ে, হাফ সেঞ্চুরিও উদযাপন করেছে জয়ে, সবার আগে টি-২০ ম্যাচের সেঞ্চুরিটাও বরন করলো পাকিস্তান জয় দিয়ে। গতকাল ৮ বল হাতে রেখে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ৭ উইকেটে হারিয়ে নিজেদের শততম ম্যাচ উদযাপনে এশিয়া কাপে ফিরল পাকিস্তান।
লড়াইটা ছিল এক অর্থে বড় ভাইদের সঙ্গে ছোট ভাইয়ের। লড়াইটা ছিল ওয়াকার ইউনুস ভার্সেস আকিব জাভেদেরও। এই লড়াইয়ে অভিজ্ঞতার কাছে হেরেছে আকিব জাভেদের দল। ভারতের কাছে ৫ উইকেটে হেরেও চোট দিতে পেরেছিলেন পাকিস্তানের বাঁ হাতি পেসার আমির। সেই আমির গতকালও স্বরুপে (৪-১-৬-২)। তাকে আমিরাত ব্যাটসম্যানরা এতোটাই সমীহ করেছে যে,  ২৪ বলের মধ্যে ২২টিই ডট! পুরো ইনিংসে ডট বলের সংখ্যা ৭২টি। স্কোরিং শট মাত্র ৪৮টি। তারপরও স্কোরশিটে ১২/৩, এমন বিপর্যয়ে আসলের সর্বনিন্ম স্কোরের লজ্জাটা পেতে হয়নি আরব আমিরাতকে। প্রাথমিক দূর্যোগ সামাল দিয়ে স্কোর টেনে নিয়েছে আরব আমিরাত ১২৯/৬ পর্যন্ত। মিডল অর্ডার সাইমান আনোয়ারের ৪২ বলে ৪৬, অধিনায়ক আমজাদ জাভেদের ১৮ বলে ২৭ রানের হার না মানা ইনিংসের ফলে সম্ভব হয়েছে তা।
ওভার প্রতি ৬.৫০ রান তাড়া করতে যেয়ে পাকিস্তানের শুরুটা ছিল অলুক্ষুণে। আরব আমিরাত অধিনায়ক আমজাদ জাভেদের ভয়ংকর এক স্পেলে (৩-০-১৩-৩) স্কোরশিটে ১৭ উঠতে পাকিস্তানকে হারাতে হয়েছে তিন টপ অর্ডার সারজিল, খুররম মনজুর, হাফিজকে। সেখান থেকে সোয়েব মালিক-ওমর আকমলের ৯৩ বলে ১১৪ রানের অবিচ্ছিন্ন পার্টনারশিপে হাসতে পেরেছে পাকিস্তান। অথচ, ম্যাচটিতে ১৫ ওভার পর্যন্ত কিন্তু ভরসা টিকিয়ে রেখেছিল আরব আমিরাত। ৩০ বলে ৪৬ রানের লক্ষ্যটা একপ্রকার দূরুহই মনে হচ্ছিল। তবে  ১৬তম ওভারে শাহজাদের বলে সোয়েব মালিক ব্যক্তিগত ৪১ রানের মাথায় ডিপ স্কোয়ার লেগের ফিল্ডারের হাতে সহজ ক্যাচ দিয়ে বেঁচে যাওয়ায় আমিরাতের সব স্বপ্ন ভেঙ্গে খান খান হয়েছে। বেঁচে যাওয়া সোয়েব মালিক রোহান মোস্তফাকে ছক্কায় উদযাপন করেছেন টি-২০তে ৫ম ফিফটি। ৪৪ বলে ফিফটি পূর্ণ করে ইনিংস টেনে নিয়েছেন ৬৩ পর্যন্ত (৪৯ বলে ৭ চার ৩ ছক্কা)। ওমর আকমল ৭ম ফিফটি উদযাপন করেছেন (৪৬ বলে ৭ চার ৩ ছক্কা)। ২৩ তম ওভারে আমজাদ জাভেদকে ৩ ছক্কা ১ বাউন্ডারিতে ২৩ রান যোগ করেছে অবিচ্ছিন্ন এই ৪র্থ জুুটি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জয়ে সেঞ্চুরি উদযাপন পাকিস্তানের
আরও পড়ুন