Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৬ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

উগ্রবাদের বিরুদ্ধে যৌথভাবে লড়াইয়ের অঙ্গীকার ঘোষণা

প্রকাশের সময় : ৫ এপ্রিল, ২০১৭, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১২:১১ এএম, ৫ এপ্রিল, ২০১৭

ইনকিলাব ডেস্ক : ওয়াশিংটন সফরে রয়েছেন মিসরের প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফাত্তাহ আল সিসি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মিসরের প্রেসিডেন্টকে হোয়াইট হাউসে স্বাগত জানিয়েছেন। স্থানীয় সময় গত সোমবার তাকে স্বাগত জানান ট্রাম্প। বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলন করেন দুই নেতা। সংবাদ সম্মেলনে বিগত বছরগুলোর শীতল সম্পর্কের বিপরীতে বৃহত্তম আরব দেশ মিসরের সঙ্গে যৌথভাবে ইসলামী উদ্রবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অঙ্গীকার করেন ট্রাম্প। ওভাল অফিসে ট্রাম্প বলেন, আমরা মিসর ও মিসরের জনগণের পাশে আছি। আমি মিসরের প্রেসিডেন্টকে বলতে চাই যুক্তরাষ্ট্র আপনার একজন মহান বন্ধু এবং মিত্র। আমি ব্যক্তিগতভাবে মিসরের প্রেসিডেন্টের কাজের প্রশংসা করি। সংকটকালীন সময়ে সিসি মিসরকে নেতৃত্ব দিয়ে একজন ভালো নেতার মতো কাজ করেছেন।
মিসরের প্রেসিডেন্ট সিসিও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ভ‚য়সী প্রশংসা করেন। সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় ট্রাম্প শক্ত অবস্থানেই রয়েছেন। ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন। অনিষ্ট আদর্শকে রোধ করতে কাজ করছেন ট্রাম্প। সিসি আরো বলেন, মিসর বর্তমানে অভ্যন্তরীণ সংকট মোকাবেলা করছে। বিশেষ কতরে সিনাই নিয়ে খারাপ সময় অতিবাহিত করছি আমরা। সিনাইয়ে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা সামরিক বাহিনীর সদস্য ও পুলিশকে হত্যা করছে বলে জানান সিসি। সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ২০০৯ সালে সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসনি মোবারককে হোয়াইট হাউসে স্বাগত জানানোর পর এই প্রথম মিসরের কোন নেতা হোয়াইট হাউস সফর করলেন। মার্কিন নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমন্ত্রণে ওয়াশিংটন সফর করেন সিসি। প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পরে সর্ব প্রথম মিসরের এই সামরিক শাসক আরব দেশের মধ্যে ট্রাম্পকে ফোন করে বিজয়ের শুভেচ্ছা জানান। ২০১৩ সালে মার্কিন সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা মিসরকে সামরিক সহায়তা বন্ধ করে দেন। জেনারেল সিসির নেতৃত্বে মিসরের সামরিক বাহিনী দেশটির প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করার পর। পরের বছল ২০১৪ সালে আব্দেল ফাত্তাহ আল সিসি মিসরের প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন। মিসরের প্রেসিডেন্ট প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ছাড়াও বিশ্ব ব্যাংক ও আইএমএফ এর প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন। মিসরের অর্থনৈতিক কার্যক্রম গতিশীল করতে তিনি আর্থিক সহায়তা চেয়েছেন বিশ্ব ব্যাংকের কাছে। আল জাজিরা, ভয়েস অব আমেরিকা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ