Inqilab Logo

সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

লোপাট করতেই প্রতিদিন পদ্মা সেতুর ব্যয় বাড়াচ্ছে সরকার : মির্জা ফখরুল

প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার ঃ বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সকল দুর্নীতির বৈধতা দিচ্ছে সরকার। মৌচাক ফ্লাই ওভারে ১২শ’ কোটি টাকা ব্যয় বাড়িয়েছে। প্রতিদিন পদ্মা সেতুর ব্যয় বাড়ছে। এ সব বাড়ানো অর্থ সরকার লুটপাট করছে।
গতকাল (বুধবার) সন্ধ্যায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে মহানগর বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।
ঢাকা মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও এম কে আনোয়ারসহ সকল রাজবন্দির মুক্তির দাবিতে সমাবেশের আয়োজন করা হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী আবুল বাসার। পরিচালনা করেন খিলগাঁও থানা বিএনপির সভাপতি ইউনুছ মৃধা ও বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ।
মির্জা ফখরুল বলেন, প্রধান বিচারপতির বক্তব্য অনুযায়ী সরকারের বৈধতা নেই। বেআইনি হওয়ায় এখন নিজেদের মধ্যে কোন্দল শুরু হয়ে গেছে। দুর্নীতিকে বৈধতা দিচ্ছে। প্রতিদিন পদ্মা সেতুর ব্যয় বাড়ছে। মৌচাক ফ্লাই ওভারে ১২শ’ কোটি টাকা ব্যয় বাড়িয়েছে। এ সব বাড়ানো অর্থ সরকার লুটপাট করছে। সকল দুর্নীতির বৈধতা দিচ্ছে সরকার।
ঢাকা মহানগর নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দিয়ে তিনি বলেন, আন্দোলন হলেও আমরা সফল হতে পারছি না। তাই বিভেদ ভুলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে। নগরীর নেতাকর্মী যারা গুম-খুন ও মামলার শিকার হয়েছেন তাদের তালিকা প্রস্তুত করতে হবে।
দেশে আইনের শাসন নেই উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের নেত্রী সংলাপের আহ্বান জানিয়েছেন কিন্তু তারা আলোচনা চায় না। কেননা তারা জানে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ জয়লাভ করতে পারবে না।
প্রতিবাদ সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান জিয়াউর রহমানের মাজার সরানোর প্রসঙ্গে বলেন, পূর্তমন্ত্রী বলছেন আইউব খানের পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ হবে। আইউব খানের প্রতি এতো শ্রদ্ধা। ভাবতে ভালোই লাগে।
তিনি আরো বলেন, জিয়াউর রহমানের জানাজায় লক্ষ লক্ষ লোক উপস্থিত হয়েছিলো। তার মাজারে হাত দিতে গেলে লক্ষ লক্ষ মানুষ প্রতিবাদে ফেটে পড়বে। কাউকে দাওয়াত দেয়া লাগবে না। সরকারের উচিত বুঝে শুনে মাজারে হাত দেয়া।
চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ডা. জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, গণমাধ্যম যা-ই প্রকাশ করুক না কেন তারেক রহমান ভবিষ্যতে নেতৃত্ব দেবেন আমরা এটা বিশ্বাস করি। আমরা ধানের শীষের সমর্থক। শহীদ জিয়ার সৈনিক।
সমাবেশে যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আবুল খায়ের ভূইয়া, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মুনির হোসেন, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইন, ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ আব্দুল মালেক, ছাত্রদলের সহ-সভাপতি এজমল হোসেন পাইলট প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লোপাট করতেই প্রতিদিন পদ্মা সেতুর ব্যয় বাড়াচ্ছে সরকার : মির্জা ফখরুল
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ