Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫, ১৫ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

অ্যাপারচার লেন্সের সেলফি ক্যামেরা

| প্রকাশের সময় : ১১ এপ্রিল, ২০১৭, ১২:০০ এএম

শওকত আলম পলাশ : বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হুয়াওয়ে দেশের বাজারে আনতে যাচ্ছে জনপ্রিয় ফ্ল্যাগশীপ পি সিরিজের নতুন পি ১০ ও পি ১০ প্লাস। কোথাও ঘুরতে গেলে কিংবা কোনো বিশেষ মূহুর্ত উদযাপনে পছন্দের মূহুর্তগুলো ক্যামেরাবন্দী করতে হুয়াওয়ে পি ১০-এ ব্যবহৃত হয়েছে বিশ্বের সেরা লাইকা ক্যামেরা। তবে এবারের আকর্ষণ হচ্ছে সেলফি তোলা যাবে জার্মানির বিখ্যাত লাইকা প্রযুক্তির সেলফি ক্যামেরা দিয়ে, যা ব্যবহারকারীকে দেবে চোখ ধাঁধানো অভিজ্ঞতা। কোথাও ঘুরতে গেলে সেলফি তোলার বিকল্প নেই বললেই চলে। কেউ আর এখন অপরিচিত কোনো লোককে ডেকে ছবি তুলে দিতে বলে না। একা থাকলে কিংবা বড় কোনো গ্রæপের সঙ্গে কোথাও ঘুরতে গেলে সবাইকে নিয়ে সেলফি তোলার ইচ্ছা সবারই থাকে। কিন্তু সব মোবাইলের সেলফি ক্যামেরায়তো আর ওয়াই-অ্যাঙ্গেল লেন্স থাকে না, কিংবা বিস্তৃত অংশ জুড়ে ছবি তোলার অপশনও থাকে না সব ব্র্যান্ডের ফোনে। এক্ষেত্রে হুয়াওয়ে পি ১০ ব্যবহারকারীকে দিচ্ছে দুর্দান্ত সেলফি তোলার অপশন। পি সিরিজের বর্তমানে বাজারে চলমান মডেল পি ৯-এর ব্যাক ক্যামেরায় লাইকা লেন্স প্রযুক্তি দিয়েছিলো প্রতিষ্ঠানটি। কিন্তু পি ১০-এর ফ্রন্ট ক্যামেরাতেও উন্নত প্রযুক্তির লাইকা লেন্স ব্যবহারকারীকে দেবে অভিনব সেলফি তোলার অভিজ্ঞতা।

পি ১০-এর ফ্রন্ট ক্যামেরাতে রয়েছে অত্যাধুনিক পিক্সেল বাইন্ডিং প্রযুক্তি, কম আলোতে উজ্জল ছবি তোলার জন্য দুইগুণ বেশি উজ্জলতা, লাইকা পোর্ট্রটে টিউনিং, অ্যাডাপটিভ সেলফি ফিচার এবং এক ও একাধিক জন একসঙ্গে সেলফি তোলার জন্য স্বয়ংক্রীয় ফ্রেমিং সেলফি প্রযুক্তি। উক্ত ফিচারগুলো হুয়াওয়েকে বিশ্ব বাজারে অন্যান্য ব্র্যান্ডের স্মার্টফোনগুলো থেকে নিঃসন্দেহে এগিয়ে রাখবে। মূল আলোচনার বিষয় হচ্ছে লো লাইট বা কম আলোতেও ইফেক্ট ব্যবহার করে পোর্ট্রেট সেলফি ছবি তুলতে পারবে ব্যবহারকারীরা। এছাড়া পি ১০ প্লাসের সেলফি বা ফ্রন্ট ক্যামেরায় ব্যবহার করা হয়েছে অটো ফোকাস প্রযুক্তি। পি ১০ ও পি ১০ প্লাসের সেলফি ক্যামেরার বিস্তৃত অ্যাপারচার এফ ১.৯ লেন্স দিয়ে সেলফি তোলার ক্ষেত্রে সহজেই আউট-ফোকাস করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা, যা বাস্তব রূপ ধারণ করবে অনায়াসে।
৫.১ ইঞ্চির ২.৫ডি ডিসপ্লেসমৃদ্ধ পি ১০-এ ফুল এইচডি রেজ্যুলেশনের স্ক্রীণ ব্যবহার করা হয়েছে, এবং ৫.৫ ইঞ্চির পি ১০ প্লাসের ডিসপ্লেতে ব্যবহার করা হয়েছে টুকে (২৫৬০ী১৪৪০) রেজ্যুলেশন। হাইপার ডায়মন্ড-কাট ডিজাইনের সমন্বয়ে পি ১০-এ পাওয়া যাবে মনমাতানো রং-এ। প্যানটোন কালার ইন্সটিটিউটের সঙ্গে অংশীদারিত্বে গিয়ে ট্রেন্ডি বা হাল-ফ্যাশনের রং-এ বাজারে আনা হচ্ছে ফটোগ্রাফি স্মার্টফোন পি ১০। ফোনটিতে রয়েছে হালনাগাদ অ্যান্ড্রয়েড ৭.০ নোগাট অপারেটিং সিস্টেম। দ্রæত ও পরিবর্তনশীল দৃষ্টিনন্দন থিম, ক্যামেরা সেটিংস, কন্টাক্ট লিস্টসহ বেশ কয়েকটি ফিচার কাস্টোমাইজ করতে ডিভাইসটিতে বিল্ট-ইন আছে ইমএমইউআই ৫.১। এছাড়া আছে অত্যাধুনিক ভয়েস কন্ট্রোল অপশন যার মাধ্যমে কথা বলে ব্যবহারকারী নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন তার পি ১০ ডিভাইস।
ডিভাইসটিতে প্রসেসর হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে ক্ষমতাসম্পন্ন হাইসিলিকন কিরিন ৯৬০ মডেলের হুয়াওয়ের ফ্ল্যাগশীপ প্রসেসর। দ্রæতগতিতে মাল্টিটাস্কিং, গেইম খেলাসহ অন্যান্য কাজ করতে এতে চার গিগাবাইট র‌্যামের পি ১০ ও পি ১০ প্লাসে দেয়া হয়েছে ৬৪ গিগাবাইট রম। এছাড়া মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে মেমোরি বাড়ানোতো যাবেই।
হুয়াওয়ে পি ১০ ও পি ১০ প্লাসের মূল আকর্ষণ হচ্ছে এর ক্যামেরা। লাইকার সঙ্গে অংশীদারিত্বে গিয়ে হুয়াওয়ে স্মার্টফোনে সেরা ক্যামেরা দেয়ার চেষ্টা করেছে আর তারা এক্ষেত্রে পুরোপুরি সফল। মোবাইলে উচ্চমানের পোর্ট্রেট ছবি তোলার ক্ষেত্রে হুয়াওয়ে পি ১০ ও পি ১০ প্লাস নিঃসন্দেহে স্মার্টফোনের বাজার মাতিয়ে রাখবে বলে আশা করা যায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।