Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

এখন যা হচ্ছে তা কুদরতি ব্যাপার : পরিকল্পনামন্ত্রী

একনেকে ১২ প্রকল্প অনুমোদন

প্রকাশের সময় : ২ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, এখন যা হচ্ছে, তা কুদরতি ব্যাপার। কেননা, আপনারা ভাবছেন, আমরা এমনি এমনি কথা বলছি। কিন্তু না, তা নয়। কাজও হয়ে যাচ্ছে। মঙ্গলবার রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের এনইসি (জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ) সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত একনেক পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়নসহ ১২ প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। এগুলো বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ছয় হাজার ৬৫০ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে পাঁচ হাজার ৬৯৪ কোটি ৫৬ লাখ টাকা এবং বৈদেশিক সহায়তা থেকে ৯৫৬ কোটি ১৯ লাখ টাকার যোগান দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপার্সন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের বিস্তারিত জানান।
পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচি ও এমপ্লয়মেন্ট জেনারেশন প্রোগ্রাম ফর দ্য পুওরেস্টর মাধ্যমে নির্মিত মাটির রাস্তার গ্যাপে সেতু/কালভার্ট নির্মাণ করে পানিবদ্ধতা দূর করা হবে।
পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, আগামীতে আর কোনো বাঁশের সাকো থাকবে না। আমরা সে জন্য প্রকল্পটি নিয়েছি। একনেকে অনুমোদিত প্রকল্পগুলো হচ্ছে- গ্রামীণ রাস্তায় ছোট ছোট সেতু/কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্প। এতে মোট ব্যয় হবে ৩ হাজার ৬৮৪ কোটি টাকা। ৬০ কোটি ব্যয়ে উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন শীর্ষক প্রকল্প, ৩৯৯ কোটি টাকা ব্যয়ে বৃহত্তর রাজশাহী জেলার গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প, ২৭৬ কোটি টাকা ব্যয়ে চারটি টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট স্থাপন প্রকল্প, ২৩৭ কোটি টাকা ব্যয়ে সাপোর্ট টু জয়দেবপুর-দেবগ্রাম-ভুলতা-মদনপুর সড়ক (ঢাকা বাইপাস) পিপিপি প্রকল্প, ১০৬ কোটি টাকা ব্যয়ে জাতীয় মহাসড়ক এন-৮ এর ভূরঘাটা-বরিশাল-লেবুখালী সেতু পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন ও প্রশস্তকরণ প্রকল্প, ৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে মাদারীপুরে সরকারি অফিসসমূহের জন্য বহুতল ভবন নির্মাণ প্রকল্প, ২৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি কমপ্লেক্স স্থাপন প্রকল্প, ১৯৪ কোটি টাকা ব্যয়ে জাতীয় ল্যাবরেটরি মেডিসিন ও রেফারেল সেন্টার স্থাপন প্রকল্প, ১৫২ কোটি টাকা ব্যয়ে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্প, ৪২ কোটি টাকা ব্যয়ে লালকুঠি মাতৃ ও শিশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রের অসম্পূর্ণ কাজ সমাপ্তকরণ, ২১২ কোটি টাকা ব্যয়ে দক্ষিণ উপকূলীয় অঞ্চলে (বরিশাল ও পটুয়াখালী) বীজ বর্ধন খামার স্থাপন প্রকল্প।
সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, এখন যা হচ্ছে -তা কুদরতি ব্যাপার, কেননা, আপনারা ভাবছেন, আমরা এমনি এমনি কথা বলছি। কিন্তু না, তা নয়। কাজও হয়ে যাচ্ছে।
পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আমরা ঢাকা-চট্টগ্রাম চার লেন উড়াল সড়ক করবো। শীঘ্রই কাজ শুরু হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এগুলো জাতীয় প্রকল্প। নির্বাচন চলবে, প্রকল্প চলবে। আমরা নির্বাচন কমিশনে যোগাযোগ করবো, প্রকল্প পাস করবো, কিন্তু কাজ হয়তো দেরিতে শুরু হবে।
সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনা সচিব তারিকুল ইসলাম, তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব কানিজ ফাতেমা, সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সিনিয়র সদস্য ড. শামসুল আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
বৈঠক শেষে ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ আনামের সমালোচনা করেন পরিকল্পনা মন্ত্রী। মাহফুজ আনাম প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, কেউ কিছু তথ্য দিলো আর যাচাই না করেই ছাপলেন? এটা হতে পারে না। প্রতিটা বিষয়ের একটা সীমা আছে, এটা অতিক্রম করা উচিত নয়। দেশের সব কিছুই রাজনীতিবিদদের হাত ধরে এসেছে। তাদের বাদ দিয়ে কিছু হবে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ