Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৬ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

ঢাকা-রংপুর রেলপথে ১১২ কিলোমিটার দূরত্ব কমবে

শুরু হচ্ছে সিরাজগঞ্জ-বগুড়া রেললাইনের কাজ

| প্রকাশের সময় : ১৪ এপ্রিল, ২০১৭, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : শুরু হচ্ছে সিরাজগঞ্জ-বগুড়া রেললাইনের কাজ। সিরাজগঞ্জ-বগুড়া লিংক রুটটি চালু হলে ঢাকা থেকে রংপুরের দূরত্ব ১১২ কিলোমিটার কমে যাবে। সময় লাগবে বর্তমান সময়ের তুলনায় অনেক কম। রেলওয়ে সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রীর এবারের ভারত সফরের চুক্তিতে রেল বিভাগের তিনটি প্রকল্প রয়েছে। এর মধ্যে বগুড়া থেকে সিরাজগঞ্জ হয়ে শহীদ এম মনসুর আলী স্টেশন পর্যন্ত ডুয়েল গেজ রেললাইন স্থাপন (৫০ কোটি ডলার), ঈশ্বরদী রেললাইনের উন্নয়ন (৩.৫ কোটি ডলার), ফেনী হতে বিলোনিয়া রেললাইনের সংযোগ স্থাপন (১০ কোটি ডলার) ও দুই দেশের নদীপথের বাণিজ্য বাড়াতে নদীবন্দরগুলোর উন্নয়ন (অর্থের পরিমাণ আলোচনা করে নির্ধারণ করা হবে)। এরই অংশ হিসেবে খুব শিগগিরই আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে সিরাজগঞ্জ-বগুড়া রেললিংক।
সূত্র জানায়, বগুড়া থেকে শহীদ এম মনসুর আলী স্টেশন পর্যন্ত ভায়া ঈশ্বরদী বাইপাস রেলপথে বিদ্যমান দূরত্ব ১৮৭.০২ কিলোমিটার। এদের মাঝে সরাসরি রেললাইন তৈরি হলে দূরত্ব দাঁড়াবে মাত্র ৭৪.৫১ কিলোমিটার। এতে করে ঢাকা-রংপুর রেলপথে (ভায়া বগুড়া-কাউনিয়া) দূরত্ব কমে যাবে ১১২.৫১ কিলোমিটার। সূত্র জানায়, এডিবির রেলসেক্টর ইমপ্রæভমেন্ট প্রজেক্টের আওতায় প্রথম প্রস্তাবিত হয় বগুড়া- সিরাজগঞ্জ লিংকটি। একে ঢাকা-বুড়িমারী রেল-করিডরের মিসিং লিংক হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছিল। বর্তমানে ভারত সরকারের ঋণ সহায়তা নিশ্চিত হয়েছে প্রকল্পটি। যে কারণে খুব শিগগিরি আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে এই প্রকল্প।
ঢাকা থেকে রংপুর ঈশ্বরদী বাইপাস হয়ে বর্তমান দূরত্ব ৪০৫.২৪ কিলোমিটার। কিন্তু এই নতুন লাইন ব্যবহার করে গেলে, ভায়া বগুড়া-সান্তাহার হয়ে এরুটে দূরত্ব হবে ৩৭২.৫৯ কিলোমিটার (৩২.৬৫ কিলোমিটার কম), এবং ভায়া বগুড়া-কাউনিয়া হয়ে এ রুটে দূরত্ব দাঁড়াবে ৪০৩.১৭ কিলোমিটার (২.০৭ কিলোমিটার কম)। বগুড়া-সিরাজগঞ্জ লিংক রুট চালু হলে ঢাকা থেকে রংপুর যেতে দূরত্ব কমবে ১১২.৫১ কিলোমিটার। রংপুর ও বগুড়া থেকে ট্রেনে ঢাকায় আসা অনেক সহজ হবে। এই রুট চালু হলে একই সাথে লাভবান হবে কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাটসহ পুরো উত্তরবঙ্গের বাসিন্দারা।



 

Show all comments
  • ১ জুন, ২০১৮, ২:১৩ পিএম says : 0
    বর্তমান সরকারের এই উদ্যোগটিকে স্যালুট জানাই!
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ