Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫, ১৫ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

মাথায় কাগজের রোল পড়ে প্রেসকর্মী নিহত ভাসানটেকে সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত ব্যাক্তির হাসপাতালে মৃত্যু

| প্রকাশের সময় : ১৬ এপ্রিল, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর ভাসানটেকে প্রতিপক্ষের গুলিতে আহত সন্ত্রাসী মুছা ওরফে চিৎনা জামাল চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল শনিবার মারা গেছেন। গত বুধবার গুলিবিদ্ধ হবার পর থেকে তিনি পুলিশী প্রহরায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।
উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার সকালে ভাসানটেক থানার শ্যামল পল্লীর শিল্পীরটেক এলাকার জামালের নিজের বাসার সামনে পথরোধ করে তার প্রতিপক্ষ গ্রুপের সন্ত্রাসীরা। এ সময় সন্ত্রাসী রনি, কাশেম, স্ট্যান্ড সোহেল ও ভূষি বাবু তাকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুঁড়ে। এতে শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৫টি গুলি লাগে জামালের। তাকে শ্যামলীর একটি বেসরকারি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটায় চিকিৎসকদের পরামর্শে ওই দিনই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে ভাসানটেক থানা পুলিশ জামালকে শনাক্ত করে তাকে গ্রেফতার করে। জামালের স্ত্রী রুনা দাবি করছেন, এক সময় তার স্বামী জামাল ওই এলাকার সন্ত্রাসী রনি, ভূষি বাবু, স্ট্যান্ড সোহেল, কাশেমসহ আরও অনেকের সঙ্গে চলাফেরা করতেন এবং সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে লিপ্ত ছিলেন। কিছুদিন ধরে তাদের সঙ্গ ত্যাগ করে মাটি ভরাটের ঠিকাদারি শুরু করেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন, ৮/১০ দিন আগে ওই সন্ত্রাসীরা তার স্বামীর কাছে ৫০ হাজার চাঁদা দাবি করে। টাকা না দেওয়ায় তাকে গুলি করা হয়। এতে তার পেটে, পিঠে ও হাতে গুলিবিদ্ধ হন এবং গতকাল সকালে মারা যান। ভাসানটেক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাব্বির আহমেদ বলেন, জামাল হত্যায় জড়িতদের চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে তদন্তের স্বার্থে এখন হত্যাকারীর নাম প্রকাশ করা যাচ্ছে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর