Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিতে ডেল্টা পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে হবে

প্রকাশের সময় : ৩ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ঃ বাংলাদেশকে ইতোমধ্যেই জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে সৃষ্ট বিরূপ প্রভাব মোকাবেলা করতে হচ্ছে। এ অবস্থায় কেবলমাত্র ডেল্টা প্লান দেশের টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে পারবে। এ জন্য বিজ্ঞানভিত্তিক জ্ঞান আহরণ এবং বস্তুুনিষ্ঠ তথ্য সংগ্রহ করতে হবে। গত মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত এক গোলটেবিল আলোচনায় পানি উন্নয়ন বিশেষজ্ঞরা একথা বলেছেন। বক্তারা বলেন, বাংলাদেশকে ডেল্টা পরিকল্পনা প্রণয়ন করা প্রয়োজন।
এই পরিকল্পনা কার্যকর করতে এতে অবশ্যই উন্নয়ন সেক্টর এবং মান অর্জনকারী সংস্থাকে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) পানি ও বন্যা ব্যবস্থাপনা ইনস্টিটিউটের প্রফেসর মো: মুনসুর রহমান বলেন, আমাদের ডেল্টা পরিকল্পনা প্রয়োজন। এটি জ্ঞান সংক্রান্ত উন্নয়নভিত্তিক এবং সংশ্লিষ্ট সংস্থা থেকে তথ্য সংগ্রহ করতে হবে। তিনি বলেন, এটি হতে হবে বাংলাদেশে দীর্ঘমেয়াদী, ঐতিহাসিক ও সুসংহত পরিকল্পনা।
নেদারল্যান্ডস সরকারের অর্থসহায়তায় বাংলাদেশ ডেল্টা প্লান-২১০০ প্রণয়ন প্রকল্প এই গোলটেবিল আলোচনার আয়োজন করে। এতে অন্যান্যের মধ্যে বুয়েট এবং সংশ্লিষ্ট সংস্থার পানি বিশেষজ্ঞ, বিভিন্ন স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ ডেল্টা প্লান-২১০০ এর প্রকল্প পরিচালক ড. মিজানুর রহমান অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।
প্রফেসর মুনসুর বিশ্বের বিভিন্ন ডেল্টা প্লানের উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশে পরিবেশগত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নিজস্ব দৃষ্টিকোণ থেকে বাংলাদেশ ডেল্টা প্লান-২০২১ প্রণয়ন করতে হবে।
বাংলাদেশ ডেল্টা প্লান-২১০০ এক দলনেতা প্রফেসর ড. জপ দ্য হের তার বক্তব্যে ডেল্টা পরিকল্পনার ৯টি গুরুত্বপূর্ণ দিক শনাক্ত করেন। এগুলো হলোÑ নদী, বাস্তু, উপকূল, বন্যা ব্যবস্থাপনা, অর্থ, খাবার পানি, নগর পানি ব্যবস্থাপনা শাসন, জলবায়ু পরিবর্তন এবং অভিযোজিত পানি ব্যবস্থাপনা। তিনি বলেন, ডেল্টা পরিকল্পনা প্রণয়নে এসব বিষয় বিবেচনায় নিতে হবে।
বিশিষ্ট পানি বিশেষজ্ঞ মমিনুল হক সরকার বলেন, মানুষের হস্তক্ষেপ এবং জলবায়ু পরিবর্তনে সৃষ্ট বিরূপ প্রভাবের কারণে আমাদেরকে চরম পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে। তিনি বলেন, প্রাকৃতিক কারণে অথবা মানুষের কারণে নদীর পানি প্রবাহে পরিবর্তন আসতে পারে। নদীর পানি প্রবাহে উজানে পরিবেশ বিপর্যয় ঘটতে পারে।
আন্তর্জাতিক কনসালট্যান্ট সংস্থার মোট ম্যাকডোনাল্ডের তাহমিনা শফিক বলেন, বাংলাদেশ যখন ডেল্টা প্লানে প্রবেশ করবে, তখন এটি বাস্তবায়নে বিপুল অর্থের প্রয়োজন হবে। অন্য বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ ডেল্টা প্লান প্রণয়ন একটি চলমান প্রক্রিয়া। ৫ থেকে ১০ বছরের মধ্যে ব্যাপক পরিবেশগত পরিবর্তন ঘটতে পারে। তারা বলেন, পরিবর্তিত পরিবেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই এই ডেল্টা পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিতে ডেল্টা পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে হবে
আরও পড়ুন