Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৫ জুন ২০১৭, ১১ আষাঢ়, ১৪২৪, ২৯ রমজান ১৪৩৮ হিজরী

কেমন আছেন লাকী আখন্দ

| প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৭, ১২:০০ এএম

বিনোদন ডেস্ক : আড়াই মাস হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে বাসায় ফিরেছেন সংগীতশিল্পী লাকী আখন্দ। এখন আগের তুলনায় বেশ ভালো আছেন বলে জানিয়েছে তার পারিবার। তিনি অনেকটা স্বাভাবিক জীবনযাপন করছেন। পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সবার দোয়া আর ভালোবাসায় লাকী আখন্দ এখন আগের চেয়ে অনেক ভালো আছেন। হাসপাতালে থাকতে মাঝে মাঝে চেতনা ফিরলেও তেমন কাউকে চিনতে পারতেন না। এখন সেই পরিস্থিতি নেই। গত সপ্তাহে লাকী আখন্দের বাসায় গিয়েছেন কণ্ঠশিল্পী লীনু বিল্লাহ। তাকে গান শুনিয়েছেন। ৮০ দশকে যে গান দুটির সুরকার-সংগীত পরিচালক লাকী আখন্দ ছিলেন, তা এখন নতুন সংগীতায়োজন করেছেন তমাল। গান দুটির নতুন সংগীতায়োজন কেমন হয়েছে সেটি পরামর্শের জন্য লীনু বিল্লাহ বাসায় গিয়েছিলেন। খুব মন দিয়ে গান দুটি শুনেছেন লাকী আখন্দ। শুনে প্রশংসা করলেন। কিছু কারেকশনও দিয়েছেন। মিউজিকের প্রতি এখনও তার আগ্রহ অবিচল রয়েছে। উল্লেখ্য, গত ৫ ফেব্রæয়ারি এ শিল্পীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে বিএসএমএমইউ-এর সেন্টার ফর প্যালিয়েটিভ কেয়ারের ভর্তি করা হয়। সেখানে অধ্যাপক নেজামুদ্দিন আহমেদের অধীনে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার শরীরের বর্তমান অবস্থা স¤পর্কে চিকিৎসক জানিয়েছেন, তিনি এখন ভালো আছেন। আগেও বলেছি, এই বিষয়ে নতুন কোনও চিকিৎসা নেই। চলমান চিকিৎসা ও পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে যতক্ষণ রোগীর অবস্থা ভালো রাখা সম্ভব, তাই করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত, গুণী এই সংগীতজ্ঞ অনেক দিন ধরেই মরণব্যাধী ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করছেন। ছয় মাসের চিকিৎসা শেষে থাইল্যান্ডের ব্যাংকক থেকে ২০১৬ সালের ২৫ মার্চ দেশে ফেরেন তিনি। সেখানে কেমোথেরাপি নেওয়ার পর শারীরিক অবস্থার অনেকটা উন্নতি হয়েছিল তার। একই বছরের জুনে আবারও থেরাপির জন্য ব্যাংকক যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আর্থিক সংকটের কারণে সেখানে যাওয়া হয়ে উঠেনি। তিনি অন্যের সাহায্য-সহযোগিতায় নিজের চিকিৎসা চালাতে মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলেন না। তবে ব্যাংককে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় তার চিকিৎসার জন্য পাঁচ লাখ টাকা সহায়তা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাষ্ট্রীয় ভালোবাসা হিসেবে সেটি তিনি গ্রহণ করেন।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর