Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৭, ০৬ কার্তিক ১৪২৪, ৩০ মুহাররম ১৪৩৯ হিজরী

তীরে এসে তরী ডুবল দোলেশ্বরের

| প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৭, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : পাশের মাঠে যেখানে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রতিপক্ষ বোলারদের তোপের মুখে পড়েছে লিজেন্ডস, সেখানে বিকেএসপি ফোর এ টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে রাজ্জাকের দল শেখ জামাল ক্রিকেটার্স ব্যাটসম্যানরা মেতে উঠেছে অন্য এক আনন্দে। ২ ঘণ্টা বিলম্বে শুরু হওয়া ৩৮ ওভারে নির্ধারিত ম্যাচে ওভারপ্রতি ৬.১৮ রানে স্কোরটা টেনে নিয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডী ক্লাব ২৩৫/৭ এ। তারকাদের মধ্যে ফর্মে ফিরিতে বাকি ছিলেন ইমরুল কায়েস, প্রথম দুই ইনিংসের ব্যর্থতা কাটিয়ে ৭৪ বলে ৬৭ রানের ইনিংসে নিজে ফিরেছেন ছন্দে, ছন্দে ফিরিয়েছেন দলকে। ফজলে রাব্বীর সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ১২৩ রানে দিয়েছেন নেতৃত্ব।
এই ম্যাচে শেখ জামালকে ভালোই চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন প্রাইম দোলেশ্বরের ভারতীয় রিক্রুট পুনিত সিং। চতুর্থ উইকেট জুটিতে মার্শাল আইয়ুবকে নিয়ে ১০৮ রানে দিয়েছেন নেতৃত্ব। তবে ২৭তম ওভারে তানভীর এবং ২৯তম ওভারে সোহাগ গাজীকে তিনটি করে বাউন্ডারিতে ব্যাটে ঝড় তোলা এই ব্যাটসম্যান বাঁ হাতি স্পিনার রাজের ফাঁদে পড়ে স্ট্যাম্পিংয়ে কাঁটা পড়লে (৬০ বলে ১১ চার এ ৮৩ রান) ৫২ বলে ৬১ রানের টার্গেট পাড়ি দিতে পারেনি প্রাইম দোলেশ্বর। শেষ ২ ওভারে ১৮ রানের টার্গেট পাড়ি দিতে এসে ১২ রানের বেশি যোগ করতে পারেনি প্রাইম দোলেশ্বর লোয়ার অর্ডাররা। তীরে এসে তরী ডুবেছে বুড়িগঙ্গা পারের দলটির। প্রতিদ্ব›িদ্বতাপূর্র্ণ ম্যাচে হেরে গেছে ৫ রানে।
স ং ক্ষি প্ত স্কো র
আবাহনী-ব্রাদার্স
আবাহনী : ৩২৭/৬ (৫০.০ ওভার), লিটন ৪৮, উদয় কাউল ৯৪, শান্ত ৪৯, মাহামুদুল্লাহ ৪৯*, মোসাদ্দেক ৩, মিঠুন ১৯, শুভাগতহোম ৪৪, মিশু ১/৬৬, নিহাদুজ্জামান ১/৫৪, কাজী কামরুল ২/৫৬, কাপালী ২/৪৬। ব্রাদার্স ইউনিয়ন : ২৯৫/৮ (৫০.০ ওভার), জুনায়েদ ১১৪, মিজানুর ৪২, ফরহাদ ২৬, মাইশুকুর ২৮, নিহাদুজ্জামান ৪১*, সাইফউদ্দিন ২/৫০, শুভাগতহোম ৩/৪৫, সানজামুল ১/৪৮, সাকলায়েন সজীব ১/৩৯, মোসাদ্দেক ১/২৮। ফল : আবাহনী ৩২ রানে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : শুভাগতহোম (আবাহনী)।

লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জÑগাজী গ্রæপ
রূপগঞ্জ : ১৫৬/১০ (৪৪.০ ওভার), মাহামুদুল হাসান ৩০, মুশফিকুর ২৬, মোশারফ রুবেল ৩৭, মোহাম্মদ শরীফ ২৯, আবু হায়দার রনি ৪/২৬, আলাউদ্দিন বাবু ১/২৬, পারভেজ রসুল ৩/১৭, মেহেদী হাসান ২/২৮। গাজী গ্রæপ : ১৫৭/২ (৩৬.০ ওভার), এনামুল বিজয় ৩৪, জহুরুল অমি ৬২*, মুমিনুল ৪৪, নাসির ১৫*, মাশরাফি ১/২৭, মাহামুদুল হাসান ১/২৭।
ফল : গাজী গ্রæপ ৮ উইকেটে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : আবু হায়দার রনি (গাজী গ্রæপ)।

প্রাইম দোলেশ্বর-শেখ জামাল
শেখ জামাল : ২৩৫/৭ (৩৮.০ওভার), ফজলে মাহামুদ ৫৫, ইমরুল কায়েস ৬৭, প্রশান্ত চোপরা ২০, নূরুল হাসান সোহান ৪৭, দেলোয়ার ১/২৯, হাবিবুর ২/৪৪, আরাফাত সানি ২/৫২, ফরহাদ রেজা ১/৬০। প্রাইম দোলেশ্বর : ২৩০/৭ (৩৮.০ওভার), তান্না ০, মজিদ ২৫, শাহরিয়ার নাফিস ৩১, পুনিত সিং ৮৩, মার্শাল আইয়ুব ৪২, শরীফুল্লাহ ২৫*, শাহাদত রাজিব ২/৪০, সোহাগ গাজী ১/৩৯, আবদুর রাজ্জাক ৩/৩৯, ইলিয়াস সানি ১/৪০।
ফল : শেখ জামাল ধানমন্ডী ক্লাব ৫ রানে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : আবদুর রাজ্জাক (শেখ জামাল ধানমন্ডী)।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।