Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

আইপিওতে নূরানী ডাইং ২৮ গুণ বেশি সাড়া পেয়েছে

| প্রকাশের সময় : ২৫ এপ্রিল, ২০১৭, ১২:০০ এএম

কর্পোরেট ডেস্ক : আইপিওতে ২৮ গুণ বেশি সাড়া পেয়েছে নূরানী ডাইং অ্যান্ড সোয়েটার। চার কোটি ৩০ লাখ শেয়ার বিক্রি করে মোট ৪৩ কোটি টাকার মূলধন সংগ্রহ করবে বস্ত্র খাতের কোম্পানিটি। এর বিপরীতে বিনিয়োগকারীরা সর্বমোট ১ হাজার ২০৯ কোটি টাকার শেয়ার পেতে আবেদন করেছেন। এ অবস্থায় নিয়ম অনুযায়ী লটারি করে আবেদনকারীদের মধ্যে শেয়ার বরাদ্দ করা হবে। আগামী ২ মে সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এ লটারি অনুষ্ঠিত হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। ইস্যু ম্যানেজার জানিয়েছে, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরাই কোম্পানিটির ৫৫৬ কোটি ৭৩ লাখ টাকার শেয়ার পেতে আবেদন করেছে। অথচ আইপিওতে তাদের জন্য মাত্র ১৭ কোটি ২০ লাখ টাকার শেয়ারের কোটা বরাদ্দ রয়েছে। মিউচুয়াল ফান্ডের জন্য কোটা বরাদ্দ রয়েছে ৪ কোটি ৩০ লাখ টাকার শেয়ার। অথচ আবেদন পাওয়া গেছে ৯৬ কোটি ৫৫ লাখ টাকার। সাধারণ বিনিয়োগকারীরা মোট ৪৪৭ কোটি ৮২ লাখ টাকার শেয়ার কিনতে আবেদন জমা দিয়েছেন। এ ক্যাটাগরিতে কোটা বরাদ্দ আছে মাত্র ১৩ কোটি ৭৬ লাখ টাকার শেয়ার। ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীর ৩ কোটি ৪৪ লাখ টাকার শেয়ারের কোটা বরাদ্দের বিপরীতে মোট ৫১ কোটি টাকার শেয়ার কেনার আবেদন জমা পড়েছে। একই অবস্থা ছিল প্রবাসী বাংলাদেশিদের কোটায়। এক্ষেত্রে কোটা বরাদ্দ ছিল ৪ কোটি ৩০ লাখ টাকার, আবেদন পাওয়া গেছে ৪৭ কোটি ৪৩ লাখ টাকার। গত ৯ ফেব্রæয়ারি শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) নূরানী ডাইংকে আইপিও প্রক্রিয়ায় মূলধন উত্তোলনের অনুমতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। গত ২ থেকে ১০ এপ্রিল পর্যন্ত বিভিন্ন ক্যাটাগরির বিনিয়োগকারীদের থেকে আইপিও চাঁদা ও আবেদন সংগ্রহ করেছিল প্রতিষ্ঠানটি। আবেদন বেশি হওয়ায় কোম্পানিটি আগামী ২ মে লটারি করে আবেদনকারীদের মধ্যে শেয়ার বরাদ্দ দেবে। এরপর আনুষ্ঠানিকতা শেষে সেকেন্ডারি শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্তি ও লেনদেন চালুর উদ্যোগ নেবে কোম্পানিটি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আইপিও


আরও
আরও পড়ুন