Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

দৌলতপুরে আলোচিত সবুজ হত্যা মামলায় দুই জনের ফাঁসির আদেশ

প্রকাশের সময় : ৪ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) উপজেলা সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের দিঘলকান্দী গ্রামের আলোচিত সবুজ হত্যা মামলার রায়ে দুই আসামীর ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় কুষ্টিয়া জজ কোর্টের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রেজা মোঃ আলমগীর এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে দন্ড প্রাপ্তরা হলো দৌলতপুর উপজেলার দিঘলকান্দী গ্রামের আমির উদ্দীনের ছেলে রুবেল ও একই গ্রামের মুরার আলীর  ছেলে সুজন। মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১১ সালের ৯ই সেপ্টেম্বর রুবেল ও সুজন মোটর সাইকেল ছিনতাইয়ের উদ্দ্যেশে নিহত সবুজের বাড়ী থেকে ১২ কিলোমিটার দূরে মিরপুর বাজারে পলিথিন কেনার কথা বলে ডেকে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে মিরপুর রেল লাইনের পাশে সবুজের লাশ পাওয়া যায়। পরদিন এই ঘটনায় নিহতের চাচা মনিরুল ইসলাম বাদী হয়ে দৌলতপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার সূত্র ধরে আসামীরা গ্রেপ্তার হলে আদালতে ফৌজদারী কার্যবিধির ১৬৪ ধারা মোতাবেক স্বীকারেক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করে।  বিচার কার্য চলার পর গতকাল স্বাক্ষ্য ও তথ্য প্রমান সন্দেহাতীতভাবে প্রমানিত হওয়ায় আদালতের বিচারক রুবেল ও সুজনকে ফাঁসির আদেশ প্রদান করেন।
মনোনয়ন না দেয়ায় মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন  
ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আবু আফফান নামে একজন মুক্তিযোদ্ধাকে আ.লীগ দলীয় মনোনয়ন না দেওয়ায় কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের সর্বস্তরের মুক্তিযোদ্ধারা মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে দৌলতপুর উপজেলার পরিষদ চত্বরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, মনোনয়ন বঞ্চিত মুক্তিযোদ্ধা আবু আফফান, মুক্তিযোদ্ধা কাওছার বিশ্বাস ও ওমর আলী। বক্তারা বলেন, দৌলতপুরের ১৪ ইউনিয়নের মধ্যে শুধুমাত্র বোয়ালিয়া ইউনিয়নে চয়ারম্যান পদে একজন মুক্তিযোদ্ধাকে প্রাথমিকভাবে বাছাই ও মনোনিত করে কেন্দ্রে প্রেরন করেন দৌলতপুর আ.লীগ নেতৃবৃন্দ। কিন্তু কেন্দ্র থেকে ওই মুক্তিযোদ্ধাকে বাদ দিয়ে অপর একজন সাধারন ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েরছ যা অত্যন্ত দুঃখ ও হতাশাজনক। তারা মুক্তিযোদ্ধা আবু আফফানকে আ.লীগ দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নিকট জোর দাবি জানান।
ট্রাক-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১
দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) উপজেলা সংবাদদাতা : দামুড়হুদার দর্শনা-চুয়াডাঙ্গা সড়কের লোকনাথপুর বাসস্ট্যান্ডের অদূরে পাগলাদহ নামক স্থানে ট্রাক-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে শিমুল (৩৪) নামে এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন। নিহত শিমুল চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের বাগান পাড়ার নুর আলমের ছেলে। জানা গেছে, গত বুধবার দুপুরে শিমুল ও তার দুইবন্ধু পাশাপাশিভাবে দুটি মোটরসাইকেল যোগে দর্শনা থেকে নিজবাড়ি চুয়াডাঙ্গা শহরে ফিরছিলেন। পথিমধ্যে দর্শনা-চুয়াডাঙ্গা সড়কের লোকনাথপুর বাসষ্ট্যান্ডের অদুরে পাগলাদহ নামকস্থানে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সাথে শিমুলের মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে সে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে গুরতর আহত হয়। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন