Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

চৌদ্দগ্রামে চাঁদা না পেয়ে বহুতল ভবনের কাজ বন্ধ করে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা নির্মাণ সামগ্রী লুট, দ্রুত বিচার আইনে মামলা

| প্রকাশের সময় : ১ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা সংবাদদাতা : কুমিলার চৌদ্দগ্রামে সন্ত্রাসীরা দাবিকৃত ২ লাখ টাকা চাঁদা না পেয়ে নির্মাণাধীন সামগ্রী লুট করে নিয়ে বহুতল ভবনের নির্মাণকাজ বন্ধ করে দিয়েছে। এ ঘটনায় মালিক আলহাজ নজরুল ইসলাম মজুমদার গতকাল রবিবার কুমিলার দ্রুত বিচার আদালতে ৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৭-৮ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, উপজেলা শ্রীপুর ইউনিয়নের বগৈর গ্রামের ব্যবসায়ী ও কাশীনগর ডিগ্রি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ নজরুল ইসলাম ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার জামমুড়া এলাকায় নিজ জায়গার ওপর একটি বহুতল ভবন নির্মাণকাজ শুরু করে। এ সময় মিয়ার বাজার এলাকার শিতলিয়া গ্রামের মৃত ফজলে আলীর ছেলে সোহাগ আজাদ ও জুয়েলসহ অজ্ঞাত ৭-৮ জন সন্ত্রাসী নজরুল ইসলাম মজুমদারের কাছে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। তিনি চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় সন্ত্রাসীরা নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেয়। এ বিষয়ে গত ৪ এপ্রিল তিনি চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন (ডায়েরি নং-২২৯)। পরে তিনি গত ২৫ এপ্রিল আবার নির্মাণকাজ শুরু করলে সন্ত্রাসীরা দাবিকৃত ২ লাখ টাকার জন্য ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মাণকাজ পুনরায় বন্ধ করে দেয়। এ সময় বাদি টাকা দেবে আবার অস্বীকার করলে সন্ত্রাসীরা এক লাখ টাকার রড লুটে নেয়। এ ঘটনার পর সন্ত্রাসীরা ব্যবসায়ী নজরুল ইসলামকে ২ লাখ টাকা চাঁদা দিতে চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখে। দাবিকৃত টাকা না পেলে তারা তাকে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চৌদ্দগ্রাম


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ