Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

প্রবল কালবৈশাখীর আশঙ্কা এ মাসেই বেশি বৃষ্টি ও নিম্নচাপ হতে পারে

প্রকাশের সময় : ৪ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

শফিউল আলম : চলতি মার্চ (ফাল্গুন-চৈত্র) মাসে দেশে সামগ্রিকভাবে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি হারে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এ মাসে দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পশ্চিম ও মধ্যাঞ্চলে ১ থেকে ২ দিন মাঝারি থেকে প্রবল আকারে কালবৈশাখী ঝড় বা বজ্রঝড়ের আশংকা রয়েছে।
তাছাড়া দেশের অন্যত্র ৩ থেকে ৪ দিন হালকা থেকে মাঝারি আকারে কালবৈশাখী ঝড় বজ্রঝড় সংঘটিত হতে পারে। মার্চ মাসে দিনের তাপমাত্রা বর্তমান সময়ের স্বাভাবিকের চেয়ে (৩৪ থেকে ৩৬ সেলসিয়াস) ১ থেকে ২ ডিগ্রি সে. বেশি থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। এ মাসের শেষের দিকে দেশের পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের উপর দিয়ে একটি মৃদু ধরণের তাপপ্রবাহ (৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেঃ) বয়ে যেতে পারে। মার্চ মাসের শেষের দিকে বঙ্গোপসাগরে ১টি নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে।
দীর্ঘমেয়াদী পূর্বাভাস প্রদানের লক্ষ্যে গত বুধবার আবহাওয়া অধিদপ্তরের ঝড় সতর্কীকরণ কেন্দ্র ঢাকায় অনুষ্ঠিত আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ কমিটির এক সভায় এ পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক ও বিশেষজ্ঞ কমিটির চেয়ারম্যান শামছুদ্দিন আহমেদ।
পূর্বাভাসে আরও জানানো হয়, মার্চ মাসে দেশের প্রধান নদ-নদীসমূহে পানির প্রবাহ স্বাভাবিক থাকতে পারে। কৃষি আবহাওয়ায় বলা হয়েছে, এ মাসে দেশের দৈনিক গড় বাষ্পীভবন ৪ থেকে ৫ মিলিমিটার এবং গড় সূর্য কিরণকাল সাড়ে ৬ ঘণ্টা থেকে সাড়ে ৭ ঘণ্টাকাল স্থায়ী থাকতে পারে।   
উপরোক্ত বিশেষজ্ঞ কমিটির সভায় জানানো হয়, গত ফেব্রুয়ারি মাসে সারাদেশে স্বাভাবিকের চেয়ে শতকরা ৩৭.৭ ভাগ বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে। এরমধ্যে সিলেটে ৩৪ মিলিমিটার স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের স্থলে বৃষ্টি ঝরেছে ৭৯.৫ মি.মি., খুলনায় ৩৫ মি.মি. স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের স্থলে ৭৭.৮ মি.মি. বৃষ্টিপাত হয়েছে। গত ৮ ফেব্রুয়ারি পশ্চিমা লঘুচাপের সাথে পূবালী বায়ুর সংযোগ ঘটার ফলে ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর, খুলনা ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছুৃ জায়গায় হালকা ধরণের বৃষ্টিপাত হয়েছে। এছাড়া পূবালী লঘুচাপের বর্ধিতাংশ ভারতের গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন উত্তর বঙ্গোপসাগর ও খুলনা হয়ে বাংলাদেশের মধ্যভাগ পর্যন্ত বিস্তার লাভ করায় রংপুর বিভাগ ছাড়া অন্য সবক’টি বিভাগে গত ২৩ ও ২৪ ফেব্রুয়ারি বজ্রঝড় ও শিলাবৃষ্টিসহ হালকা থেকে ভারী বর্ষণ হয়েছে। এর ফলে ফেব্রুয়ারি মাসে চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনা ও বরিশাল বিভাগে স্বাভাবিক অপেক্ষা অধিক বৃষ্টিপাত হয়েছে।
ফেব্রুয়ারি মাসের প্রম সপ্তাহে (৪-৭ ফেব্রুয়ারি) রংপুর বিভাগ ও শ্রীমঙ্গল অঞ্চলের উপর দিয়ে একটি মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায়। এ শৈত্যপ্রবাহের ফলে ৬ ফেব্রুয়ারি মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭.৮ ডিগ্রি সেঃ রেকর্ড করা হয়। এটি গত মাসের রেকর্ডকৃত সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। পরবর্তীতে দেশের সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে বাড়তে থাকে। এ মাসের বেশিরভাগ সময়ে সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স¦াভাবিক অপেক্ষা যথাক্রমে ২.৮ এবং ১.৭ ডিগ্রি সেঃ বেশি ছিল। এরই ধারাবহিকতায় গত ২০ ফেব্রুয়ারি খুলনায় দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫.৫ ডিগ্রি সেঃ রেকর্ড করা হয়। বৃষ্টিপাত ও বৃষ্টিপাতের দিন সংখ্যা ব্যতীত, তাপমাত্রা, কুয়াশা, কৃষি আবহাওয়া এবং দেশের নদ-নদীর অবস্থা ফেব্রুয়ারি মাসের পূর্বাভাসের সাথে সংগতিপূর্ণ ছিল বলে জানায় আবহাওয়া বিভাগ।  



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রবল কালবৈশাখীর আশঙ্কা এ মাসেই বেশি বৃষ্টি ও নিম্নচাপ হতে পারে
আরও পড়ুন