Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

বরিশাল আধুনিক সদর হাসপাতালে মানসম্মত চিকিৎসাব্যবস্থা নেই

| প্রকাশের সময় : ৪ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম


সনাক আয়োজিত মতবিনিময় সভায়সেবা গ্রহীতাদের অভিযোগ

বরিশাল ব্যুরো : বরিশাল আধুনিক সদর হাসপাতালে মানসম্মত চিকিৎসা ব্যবস্থা নেই বলে রোগীদের অভিযোগ উঠে এসছে টিআইবি’র সহযোগী প্রতিষ্ঠান ‘সচেতন নাগরিক কমিটি’ সনাক-এর প্রতিবেদনে। হাসপাতালটির চিকিৎসকগন সর্বক্ষনিক হাসপাতালের দায়িত্ব পালন করেন না। প্যাথলজি বিভাগে রোগ নির্নয় সরঞ্জামগুলো বিকল থাকায় রোগীদের বাধ্যতামূলকভাবে বাইরের ডায়গনষ্টিক সেন্টারে যেতে হয়। এমনকি রোগীদের বিনামূল্যের ওষুধও নিয়মিত সরবরাহ করে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। নানামুখী সংকট জিইয়ে রেখে হাসপাতালে দালাল চক্র গড়ে উঠেছে। এসব দালালরা হাসপাতালে আসা রোগীদেও কতিপয় চিকিৎসকের প্রাইভেট চেম্বার ও ক্লিনিকে নিয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থার অবসান ঘটিয়ে দ্রæত হাসপাতালটিতে চিকিৎসা পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহŸান জানানো হয়েছে সনাক-এর প্রতিবেদনে। দীর্ঘ চার যুগ পরে স¤প্রতি বরিশাল আধুনিক(?)সদর হাসপাতালটির পরিচালন ভার শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষের আওতামূক্ত করে সিভিল সার্জনের কাছে ন্যস্ত করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।
হাসপাতালের রোগী কল্যাণ সমিতির সভাকক্ষে ‘স্বাস্থ্য সেবায় স্বচ্ছতা-জবাবদিহিতা বৃদ্ধি ও সার্বিক মানোন্নয়ন’এর লক্ষে সেবাগ্রহীতাদের সঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের মতবিনিময় সভায় বক্তারা এসব অভিমত দেন। সচেতন নাগরিক কমিটিÑসনাক বরিশাল শাখার সহযোগিতায় বরিশাল জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। সভায় সভাপতিত্ব করেন বিদায়ী সিভিল সার্জন ডা. এ.এফ.এম শফীউদ্দিন। এছাড়াও হাসপাতালের চিকিৎসক, কর্মকর্তা, কর্মচারী সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার প্রতিনিধি এ মতবিনিময় সভায় অংশ নেন।
সভায় বক্তারা অভিযোগ করেন, ২০১২ সাল থেকে হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটার বন্ধ। বরিশালে ডায়রিয়া রোগীদের চিকিৎসার ব্যবস্থা রয়েছে একমাত্র সদর হাসপাতালে। কিন্তু পৃথক ওয়ার্ড না থাকায় নারী ও পুরুষ ডায়রিয়া রোগীদের একই ওয়ার্ডে থাকতে হচ্ছে। হাসপাতালের বাথরুমগুলো ব্যবহার অনোপযোগী। এমনকি টিউবওয়েলগুলো প্রায়ই বিকল হয়ে হাসপাতালের পানি সংকটের সৃষ্টি হয়। তখন বাধ্য হয়ে ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রোগীরা হাসপাতাল ত্যাগ করেন। বক্তাদের এসব অভিযোগের বিষয়ে সদ্য বিদায়ী সিভিল সার্জন ডা. এ.এফ.এম শফিউদ্দিন বলেন, বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করে তিনি হাসপাতালের এসব সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চালিয়েছেন।
মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন সনাক সভাপতি অধ্যক্ষ গাজী জাহিদ হোসেন,  চিকিৎসা বিষয়ক উপ-কমিটির আহŸায়ক প্রফেসর এম মোয়াজ্জেম হোসেন, ডেপুটি সিভিল সার্জন শ্যামল কৃষ্ণ মন্ডল, হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো. দেলোয়ার হোসেন, মহিলা পরিষদের সভাপতি রাবেয়া খাতুন, রোগী কল্যাণ সমিতির সহ-সভাপতি জাহানারা বেগম পুতুল, নূরজাহান বেগম, আওয়ামী লীগ নেতা আনোয়ার হোসাইন, শুভংকর চক্রবর্তী, ডা. সৈয়দ হাবিবুর রহমান, শিক্ষক নেতা জীবন কৃষ্ণ দে, আলহাজ্ব আবদুর রাজ্জাক, জাহানারা বেগম স্বপ্না,  রনজিৎ দত্ত, মো. ফিরোজ উদ্দীন, মো. এনিরুল ইসলাম প্রমূখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ