Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

শিশু গৃহকর্মীকে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগে গৃহিণী গ্রেফতার

| প্রকাশের সময় : ৬ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপের্টার : রাজধানীর মিরপুরে পানির একটি কাচের গøাস ভেঙে ফেলার তুচ্ছ কারণে শিশু গৃহকর্মী দিপালী আক্তার ফাতেমাকে (৮) গায়ে গরম পানি ঢেলে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে গৃহিণীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় শুক্রবার (৫ মে) বিকালে গৃহকর্ত্রী আয়েশা বেগমকে (৫০) গ্রেফতার করেছে মিরপুর থানা পুলিশ।
দিপালীর বাবা সিরাজুল ইসলাম পেশায় অটোচালক। ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পেছনে তার বাসা। ঘটনার বিবরণ দিয়ে তিনি জানান, ৭-৮ মাস আগে মিরপুর থানার ২ নম্বর সেকশনের এ-বøকের ২ নম্বর সড়কের ২৩ নম্বর বাড়ির বাসিন্দা খলিলুর রহমানের বাসায় কাজের জন্য ফাতেমাকে দেন। তিন মাসের মাথায় আবার মেয়েকে বাড়িতে নিয়ে যান তিনি। কিছুদিন পর আবারও খলিল-আয়েশা দম্পতি দিপালীকে বাসায় নিয়ে আসেন।
গত ২ মে দুপুরে অসাবধানতার কারণে পানি পানের একটি বিদেশি কাচের গøাস ভেঙে ফেলে দিপালী। সন্ধ্যায় এটা জানতে পেরে ক্ষিপ্ত হয়ে শিশুটির গায়ে গরম পানি ঢেলে দেন গৃহিণী আয়েশা। এতে মেয়েটির দুই হাত ও বুকের ৬ শতাংশ ঝলসে যায়। পরে তাকে মিরপুর শিশু হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। সেখান থেকে গত ৩ মে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নিয়ে আসা হলে চিকিৎসা দিয়ে এক সপ্তাহ পরে আবার দেখাতে বলেন কর্তব্যরত চিকিৎসক সোহান। গতকাল রাতে দিপালীকে নিয়ে ঢামেকে আসেন তার বাবা।
দিপালীর বাবা মিরপুর থানায় গৃহিণী আয়েশা বেগমের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
এদিকে গৃহকর্তা খলিলুর রহমানের দাবি, কাজ করার সময় গরম পানি লেগে দিপালী নিজেই ঝলসে গেছে। তিনি এ সময় বাসায় ছিলেন না বলেও জানান।
#



 

Show all comments
  • মাহফুজ ৬ মে, ২০১৭, ৭:২৯ এএম says : 0
    সঠিক বিচার হলে এ জঘন্য অপরাধ গুলো কমে যেত।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন