Inqilab Logo

বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮, ২২ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

টেরিসা মে’র অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন ইইউ পার্লামেন্ট প্রধান

| প্রকাশের সময় : ৭ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফলে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) কর্মকর্তারা প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করছেন বলে গত বুধবার অভিযোগ করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিসা মে। তবে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট অ্যান্তোনিও তাইয়ানি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন। গত বৃহস্পতিবার ব্রাসেলসে একটি জাদুঘরের উদ্বোধনের সময় অ্যান্তোনিও তাইয়ানি সাংবাদিকদের বলেন, কেউই যুক্তরাজ্যের নির্বাচনের ফলাফলকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে না। ইইউএর সদস্য হিসেবে থাকা এবং এর বাইরে থাকা এক বিষয় নয়— এটি বলা কোনো খারাপ কথা বা আক্রমণাত্মক নয়। ইইউ ব্রেক্সিট পরিকল্পনা উন্মোচন করার মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরই জোটের বিরুদ্ধে অভিযোগের তীর ছোড়েন টেরিসা মে। ডাউনিং স্ট্রিটে জাতির উদ্দেশে তিনি বলেন, এর মধ্য দিয়ে ইউরোপীয় জোট ব্রিটেনের জন্য হুমকি হিসেবে দেখা দিচ্ছে। মে বলেন, ব্রাসেলসের অনেকেই চান না ব্রেক্সিট আলোচনা সফল হোক। গত কয়েক দিনের পরিস্থিতি এ প্রক্রিয়ার জটিলতাগুলো সামনে এনেছে। ইইউ কর্মকর্তা ও জোটভুক্ত দেশগুলোর নেতারা ব্রিটেনের বিরুদ্ধে হুমকি তৈরি করছেন। ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফলকে প্রভাবিত করতে ইচ্ছাকৃতভাবে এসব কিছু করা হচ্ছে বলে মনে করেন তিনি। ইইউ থেকে ব্রিটেনের বিচ্ছেদ দ্রæত ও বেদনাহীন হবে না— ব্রেক্সিট আলোচক মিশেল বার্নিয়ে এমন সতর্কবার্তা দেয়ার পর টেরিসা মে এ অভিযোগ করেন। ইউরোপীয় কমিশনের (ইসি) প্রেসিডেন্ট জঁ ক্লদ ইয়ুংকার টেরিসা মের এ ধরনের বক্তব্যকে নির্বাচনী প্রচারণার অংশ বলে অভিহিত করেছেন। টেরিসা মের অভিযোগের বিষয়ে ইসির মুখপাত্র মার্গারিট শিনাস বলেন, আমরা বোকা নই। আমরা জানি, যুক্তরাজ্যে সাধারণ নির্বাচনের প্রস্তুতি চলছে। ব্রাসেলসে বর্তমানে আমরা আমাদের নীতিনির্ধারণী কাজ নিয়ে খুবই ব্যস্ত আছি। আমাদের নিজেদের বিষয়ে অনেক কাজ করার বাকি রয়েছে। এদিকে লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন জানান, নিজের রাজনৈতিক দলের স্বার্থে ব্রেক্সিট ইস্যুকে ব্যবহার করছেন টেরিসা মে। এএফপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন