Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মাদক ব্যবসায় অর্জিত সম্পদ বাজেয়াপ্ত করা হবে -দুদক চেয়ারম্যান

| প্রকাশের সময় : ৮ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরকে এক মাসের মধ্যে মাদক ব্যবসায়ীদের ঠিকানাসহ নামের তালিকা দিতে হবে। এক মাসের মধ্যে নামের তালিকা না পাঠালে অধিদপ্তরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে । এছাড়া মাদক ব্যবসার মাধ্যমে অর্জিত সম্পদ রাষ্ট্রের অনূকুলে বাজেয়াপ্ত করা হবে। কেননা এসব সম্পদ জনগণের অর্থ দিয়ে হয়েছে।
গতকাল রাজধানীর ইস্কাটনের বিয়াম ফাউন্ডেশন অডিটোরিয়ামে এ সেমিনারের এ কথা বলেন তিনি। “মাদকের ভয়াবহ আগ্রাসন ও আমাদের করণীয়›”শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ আরো বলেন, অবৈধ মাদক ব্যবসার মাধ্যমে অর্জিত সম্পদ জনগণের। মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা তৈরি করে তাদের অর্জিত সম্পদ রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করা হবে।
তিনি দেশ থেকে চিরতরে মাদক বন্ধ করতে গণমাধ্যমসহ সমাজের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে এগিয়ে আসার আহŸান জানান।
দেশের ১৭ জন বড় মাদক ব্যবসায়ীর নামের তালিকা দুদককে দিয়েছিল মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। কিন্তু ওই মাদক ব্যবসায়ীদের নামের সঙ্গে ঠিকানা খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাই এক মাসের মধ্যে ঠিকানাসহ নামের তালিকা দিতে এই আলটিমেটাম।
এ সময় তিনি কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি এবং ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়ার ক্ষেত্রে ডোপ টেস্টের আহŸান জানান। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সালাউদ্দিন মাহমুদ বলেন, ‘মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর স্বল্প মেয়াদি, মধ্য মেয়াদি এবং দীর্ঘ মেয়াদি পরিকল্পনার মাধ্যমে একটি অ্যাকশন প্ল্যান প্রণয়ন করেছে। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে মাদক নিয়ন্ত্রণে ভালো ফল পাওয়া যাবে। বর্তমান সময়ে মাদক নিয়ন্ত্রণে গণসচেতনতা এবং ইনফোর্সমেন্ট কার্যক্রম বৃদ্ধি করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ