Inqilab Logo

শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

জ্বালানি তেলের দাম : যুক্তরাষ্ট্রে কমবে, এশিয়া ইউরোপে বাড়বে

প্রকাশের সময় : ৫ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কর্পোরেট রিপোর্ট : এশিয়া ও ইউরোপের ক্রেতাদের জন্য অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়েছে সৌদি আরব। তবে যুক্তরাষ্ট্রের ক্রেতাদের জন্য দাম কমানো হয়েছে। খবর এএফপি। আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম সামান্য বৃদ্ধি পাওয়ায় সৌদি আরব এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট নর্থ সি ক্রুডের দাম ৩৭ ডলার ও ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটের দাম ৩৪ ডলারে উন্নীত হয়েছে। সৌদি রাষ্ট্রায়ত্ত জ্বালানি কোম্পানি আরামকো জানিয়েছে, মার্চ থেকে এশিয়ার পথে জাহাজীকরণের জন্য ক্রয়াদেশের ক্ষেত্রে অ্যারাবিয়ান লাইট ক্রডের দাম ব্যারেল প্রতি ২৫ সেন্ট বাড়ানো হয়েছে। তবে এখনো এ দাম ওপেক নির্ধারিত বেঞ্চমার্কের চেয়ে ৭৫ সেন্ট কম বলে আরামকো উল্লেখ করেছে। অ্যারাবিয়ান লাইটের পাশাপাশি সুপার লাইট ও এক্সট্রা লাইট ক্রুডের দামও বাড়ানো হয়েছে। সৌদি আরবসহ উপসাগরীয় তেল রফতানিকারক দেশগুলোর জন্য এশিয়া, বিশেষত চীন এখনো সবচেয়ে বড় বাজার। অতি সরবরাহে ভারাক্রান্ত চীনা বাজারে জ্বালানি কোম্পানিগুলোর প্রতিযোগিতাও তীব্র। এপ্রিলে ইউরোপের পথে জাহাজীকরণের জন্য ক্রয়াদেশের ক্ষেত্রে অ্যারাবিয়ান লাইট ক্রুডের দাম ৩৫ সেন্ট বাড়ানো হয়েছে। আরামকো জানিয়েছে, বর্ধিত এ দর ওপেকের বেঞ্চমার্কের চেয়ে ৪ ডলার ৬০ সেন্ট কম। ইউরোপের জন্য অন্যান্য মানের জ্বালানির দামও ব্যারেলপ্রতি ২০ সেন্ট বৃদ্ধি করেছে আরামকো। তবে এপ্রিলে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য জাহাজীকরণের ক্ষেত্রে সবক’টি রফতানিযোগ্য গ্রেডের দাম ২০ থেকে ৩০ সেন্ট কমানো হয়েছে। এছাড়া মধ্যপ্রাচ্যের ক্রেতাদের জন্য দুটি গ্রেডের দাম বৃদ্ধি ও অন্য দুটির দাম অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জ্বালানি তেলের দাম : যুক্তরাষ্ট্রে কমবে
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ