Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

রাজস্ব আদায়ে ব্যর্থ হলে অর্থ বরাদ্দ নয় স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

| প্রকাশের সময় : ১০ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভাসমূহকে নিজস্ব আয় বাড়ানোর বিষয়ে জোর দিতে হবে। উন্নয়ন কর্মকান্ডের জন্য সরকারি অর্থ বরাদ্দের দিকে তাকিয়ে থাকলে চলবে না। সন্তোষজনক রাজস্ব আদায় করতে ব্যর্থ হলে ভবিষ্যতে অর্থ বরাদ্দে মন্ত্রণালয় কঠোর হবে।
গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের সম্মেলন কক্ষে বেলারুশ থেকে ক্রয়কৃত ভারী যানবাহন ও যন্ত্রপাতি ৩ টি সিটি কর্পোরেশন ও ১১ টি পৌরসভার মেয় দের মাঝে হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান এসব কথা বলেন তিনি।
স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব আবদুল মালেক-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন  ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হক, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী শ্যামা প্রসাদ অধিকারী, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন ও নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সহ সংশ্লিষ্ট পৌরসভার মেয়রগণ।
প্রাথমিকভাবে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে ৩৫ টি, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে ৩৫ টি ও নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনে ২৩ টি এবং ময়মনসিংহ পৌরসভায় ৭ টি, ফরিদপুর ৭ টি, সাভার ৪ টি, নরসিংদী ৪ টি,  ঘোড়াশাল ৪ টি, গোপালগঞ্জ ৪ টি, টুঙ্গিপাড়া ৪ টি, কোটালীপাড়া ৪ টি, পটুয়াখালী ৭ টি, বাউফল ৪ টি ও ভেদরগঞ্জ পৌরসভায় ১ টি সহ মোট ১৪৩ টি যন্ত্রপাতি বিতরণ করা হয়। অতি শীঘ্রই দেশের বাকি সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভায় এসকল যন্ত্রপাতি বিতরণ করা হবে।
স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধির জন্য সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভাসমূহকে স্বয়ং-সম্পূর্ণ করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে বর্তমান সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়নের মাধ্যমে ইতোমধ্যে এ প্রতিষ্ঠানসমূহের সেবার মান বৃদ্ধি পেয়েছে।  মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতার পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানসমূহ নিজস্ব সক্ষমতায় অনেক দূর এগিয়েছে। মন্ত্রী বলেন, বেলারুশ আমাদের পরীক্ষিত বন্ধু। স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ও স্বাধীনতা অর্জন পরবর্তী সময়ে স্বীকৃতি অর্জনে সবসময় অকৃত্রিমভাবে কাজ করেছে। ২০১৩ সালে বেলারুশ সফরে গিয়ে সহজ শর্তে দ্রব্য ঋণ চুক্তি করেছিলেন। তিনি বলেন, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান গুলোর জন্য উন্নতমানের যানবাহন ও যন্ত্রপাতি ক্রয়ের মাধ্যমে দু’দেশের সম্পর্ক নতুন দিগন্তের সূচনা হয়েছে। ভবিষ্যতে আরও বৃহৎ পরিসরে জেলা পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও ইউনিয়ন পরিষদের জন্যও প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ক্রয় করা হবে।
মন্ত্রী বলেন, প্রাথমিকভাবে ৫০ মিলিয়ন ডলারের যন্ত্রপাতি ক্রয় করা হয়েছে। বেলারুশের শিল্প মন্ত্রী ঠরঃধষু ঠড়াশ-এর সফরের সময় আরও অতিরিক্ত ১৭ মিলিয়ন ডলারের যন্ত্রপাতি ক্রয়ে সহযোগিতার কথা উল্লেখ করেন। এখাতে আরও ১০০ মিলিয়ন ডলারের ঋণ সুবিধা প্রদানে বেলারুশ সরকারের মন্ত্রীর আশ^াসের কথা জানান। মন্ত্রী বলেন, ইতোপূর্বে সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভাসমূহকে বড় পরিসরে যানবাহন ও যন্ত্রপাতি সুবিধা দেয়া সম্ভবপর হয়নি। এ যানবাহন ও যন্ত্রপাতি ব্যবহারের মাধ্যমে সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভাসমূহ পরিচ্ছন্ন ও টেকসই নগরী গড়ে তুলতে সক্ষম হবে। এসকল যন্ত্রপাতি ও যানবাহন যতœ সহকারে যথাযথভাবে ব্যবহার করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেন।
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হক বলেন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বর্তমানে সকলের জন্য একটি যুদ্ধ। পরিচ্ছন্ন ও স্বাস্থ্য-সম্মত নগরী গড়ে তুলতে এ যন্ত্রপাতিসমূহ বিশেষভাবে সহায়ক হবে। অন্যদিকে, স্থানীয় সরকার সচিব বলেন, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে মন্ত্রণালয় যুগোপযোগি সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ