Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

গুলিবিদ্ধ লাশের পরিচয় নিয়ে লুকোচুরি

| প্রকাশের সময় : ১৩ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতা : ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার দারিয়াপুর এলাকায় আনিছুর রহমান ওরফে খোকন (৩৮) নামক এক যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত যুবক জেলার আশুগঞ্জ উপজেলার তালশহর গ্রামের মোঃ লুৎফুর হাকিম ওরফে লুলু মিয়ার ছেলে। পুলিশের দাবি তার বিরুদ্ধে ১২টি মাদক মামলাসহ আরো কয়েকটি মামলা রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর লোকজন তাকে খুঁজছিল। জানা যায়, দীর্ঘ দিন খোকন শহরের কলেজপাড়া এলাকা থেকে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করতেন। গত বৃহষ্পতিবার সকাল ১০টার দিকে সদর উপজেলর দারিয়াপুর এলাকার মূল সড়কের পাশ থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ের এক যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসী। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপতালে প্রেরন করে। মরদেহটি বুকের ডান পাশে গুলির চিহ্ন ও চোখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান। ওই সময় মরদেহটি পরিচয় শনাক্ত করতে পারে নি বলে পুলিশ জানায়। কিন্তু প্রায় দুপুর পর্যন্ত মরদেহটির পরিচয় নিয়ে লুকোচুরি করে পুলিশ। পরে নিহত ব্যক্তির নাম আনিছুল হক বলে জানতে পারে বলে পুলিশ জানায়। মরদেহটির পাশ থেকে একটি ব্যাগ, এক জোড়া জুতা পাওয়া গেছে। সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পমা.মঈনুর রহমান জানান, পলাক মারফত জানতে পেরেছি উদ্ধার হওয়া মরদেহ মাদক ব্যবসায়ী আনিসুল হক খোকনের। তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। উল্লেখ্য, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ী পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে মাদক ব্যবসায়ী আল আমিনকে পুলিশ বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে গুলি করে হত্যার অভিযোগে সদর মডেল থানা পুলিশের ওসিসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেন নিহতের পরিবারের লোকজন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ