Inqilab Logo

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

ঐতিহাসিক ফারাক্কা দিবস উপলক্ষে সমাবেশ ও কলস মিছিলের কর্মসূচি

| প্রকাশের সময় : ১৫ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

রাজশাহী ব্যুরো : ঐতিহাসিক ফারাক্কা লংমার্চ দিবস উপলক্ষে ফারাক্কা লংমার্চ দিবস উদযাপন কমিটি রাজশাহী আগামী কাল বিকেলে সাহেব বাজার বড় মসজিদ চত্তরে সমাবেশ ও পদ্মার চরে মহিলাদের কলস ভেঙে প্রতিবাদ কর্মসূচির আয়োজন করেছে। গতকাল দুপুরে নদী ও পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন অফিসে এক সাংবাদিক সম্মেলনে ফারাক্কা লংমার্চ দিবস উৎযাপন কমিটির সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট মো: এনামুল হক এ তথ্য জানান। সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে প্রধান অতিথির হিসাবে উপস্থিত থাকবেন কবি গবেষক ও কলামিস্ট ফরহাদ মজহার, প্রধান বক্তা থাকবেন বিশিষ্ট সাংবাদিক কবি আব্দুল হাই শিকদার, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রফেসর ড. আবুল কালাম আজাদ, প্রফেসর ড. এম এম সায়েদুর রহমান, প্রফেসর ড. মো: এনামুল হক, প্রফেসর মাহবুবুর রহমান, প্রফেসর ড. ফজলুল হক প্রমুখ।
সাংবাদিক সম্মেলনে ঐতিহাসিক ফারাক্কা লংমার্চ পটভুমি তুলে ধরে বলেন আজ থেকে ৪১ বছর আগে ১৬ মে মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানী প্রতিবেশী দেশ ভারতের পানি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে লংমার্চ করেছিলেন। সেদিন বাংলাদেশের নদী সমূহের যে পরিস্থিতি ছিল আজ চার দশক পর তা আরও ভয়াবহ অবস্থা দাড়িয়েছে। ভারতের ভয়াবহ পানি আগ্রাসী কমসূচি বাস্তবায়নের ফলে ভাটির দেশ বাংলাদেশ ভয়াবহ বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে। এক ফারাক্কা বাংলাদেশের দফারফা করে ছেড়েছে। এরপর গজলডোবা উত্তরাঞ্চলের মরুময়তার দিকে ঠেলে দিচ্ছে। ফারাক্কার কারনে প্রতিবছর পাঁচশো কোটি টাকা ক্ষতি হচ্ছে। ভারতের পানি আগ্রাসী নীতির প্রতিবাদ জানাতে হবে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে। এটা কোন রাজনীতির ব্যাপার নয়। মানুষের জীবন মরন সমস্যা। পানি সমস্যা দ্বিপাক্ষিকভাবে সমাধান করা যাবেনা। অতএব আর্ন্তজাতিক নদীর পানির সুষ্ঠু ব্যবহারের স্বার্থে নদী বিষয়ে ভারত বাংলাদশে চীন নেপাল ও ভুটানকে নিয়ে একটি আঞ্চলিক পানি ফোরাম গঠন এখন সময়ের দাবী। সমাবেশ সফল করতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ