Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
শিরোনাম

দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম

| প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

প্রঃ নিষ্ঠার সাথে নামাজ আদায় করলে নাকি মানুষের গোনাহ ঝরে পড়ে যায়।
উঃ হাঁ, একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের উদ্দেশ্যে যথারীতি নামাজ আদায় করলে মু’মিনের গোনাহ ঝরে পড়ে যায়। হাদীসে আছেÑহযরত আবু যর (রাযি.) বলেন, একবার নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম, বাইরে বের হলেন। তখন ছিল শীতকাল। ঘন ঘন গাছের পাতা ঝরছিল। তিনি গাছের একটি শাখায় হাত দিলেন, এতে নাড়া লেগে আরো বেশি পাতা ঝরে পড়লো। হুযুর সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, হে আবু যর! মুসলমান ব্যক্তি যখন ইখলাসের সাথে আল্লাহ তায়ালার জন্যে নামাজ আদায় করে, তখন তার গোনাহগুলো এভাবে ঝরে পড়ে, যেভাবে ওই পাতাগুলো গাছ হতে ঝরে পড়ছে। (আহমদ)
প্রঃ মুমিন ও কাফেরের মধ্যে পার্থক্য করার সহজ উপায় কি নামাজ?
উঃ প্রকৃত ঈমানদার সেই, যে নিয়মিত নামাজ আদায় করে। আর কাফের কোনদিন নামাজের কাছেও আসবে না। তাই নামাজ দ্বারা মুমিন এবং কাফেরের মধ্যে সহজেই পার্থক্য করা যায়। এটাও নামাজের একটা বিশেষ ফযীলত যে, এর দ্বারা নামাজি ব্যক্তি কাফের হতে আলাদা হয়ে যায়। যে যত বেশি ভাল করে নামাজ আদায় করবে, সে ততবেশি ঈমানদার হিসেবে বিবেচিত হবে।
হাদীসে আছে-হযরত জাবের (রাযি.) হতে বর্ণিত-হুজুর আকরাম সাল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন যে, নামাজ ত্যাগ করা মানুষকে কুফরের সাথে মিলিয়ে দেয়।
-মুফতী ওয়ালীয়ুর রহমান খান

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।