Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ জুলাই ২০১৭, ০৮ শ্রাবণ, ১৪২৪, ২৮ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী

দুই ছাত্রী ধর্ষণে সরকারের প্রভাবশালীদের মদদ আছে -মওদুদ আহমদ

| প্রকাশের সময় : ২০ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : সরকারের প্রভাবশালীদের সমর্থন ও মদদেই ধর্ষনসহ সামাজিক অপরাধ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেন, দুই ছাত্রী ধর্ষণে সরকারের কোন না কোন প্রভাবশালী মানুষের সমর্থন ও মদদ আছে।
গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ দাবি করেন। ‘দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া জিয়া ঘোষিত ভিশন- ২০৩০ আগামী দিনে রাজনীতি আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এ সভাটি হয়।
ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, প্রত্যেকটি অপরাধের সঙ্গে তারাই জড়িত যারা অপরাধ করে। কিন্তু এখন যত অপরাধ বাংলাদেশে হচ্ছে, প্রতিটি অপরাধের সঙ্গে সরকারের কোন না কোন প্রভাবশালী মানুষের সমর্থন ও মদদ আছে। দুই ছাত্রীর ধর্ষণের ঘটনার বিষয়টি আরো বেশী প্রমাণিত হয়েছে।
তিনি বলেন, এই যে আজকে সামাজিক পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে অপরাধ। প্রত্যেকদিন অপরাধ হচ্ছে, দিনে ১২টি খুন হচ্ছে বাংলাদেশে এখন।
স¤প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী ধর্ষনের ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে মওদুদ বলেন, দুই শিক্ষার্থীর ধর্ষণের ঘটনায় ক্ষমতাসীন প্রভাবশালীদের যুক্ত থাকার বিষয়টা আরো বেশি প্রমাণিত হয়েছে। সব নাম বেরিয়ে এসেছে। কারা কখন কিভাবে তাদেরকে মদদ দিয়েছে। প্রভাবশালী বুঝতে বুঝায় সরকারের সঙ্গে জড়িত। আমাদের পক্ষে তো কেউ নাই। আমাদের পক্ষে তো এই অপরাধ করা তো সম্ভব নয়।
বিএনপি যেকোন সময় নির্বাচন করার জন্য প্রস্তুত জানিয়ে বিএনপির এ সিনিয়র নেতা বলেন, নির্বাচনে জনগণকে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। এর জন্য আমরা বলেছি, সহায়ক সরকারের (এটা যেকোন নামেই হতে পারে) কথা। যাদের কোন রাজনৈতিক স্বার্থ থাকবে না।
সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগের পরাজয় অবধারিত মন্তব্য করে মওদুদ বলেন, এজন্য সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে আওয়ামী লীগ ভয় পায়। তবে আগামীতে নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধ হবে। কোন এক দলীয় নির্বাচন আর হবে না। সেই নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করেব।
‘ভিশন ২০৩০’ বিচার বিভাগের স্বাধীনতা নিশ্চিত করার অঙ্গীকারসমূহ তুলে ধরে সাবেক আইনমন্ত্রী মওদুদ বলেন, আমরা চাই সম্পূর্ণভাবে একটি স্বাধীন বিচার বিভাগ। সংবিধানে যে ক্ষমতা বিচার বিভাগের ওপর অর্পিত আছে, বিচার বিভাগের বিচারকরা নির্ভয়ে সেটা ব্যবহার করবেন এবং মানুষকে সত্যিকার অর্থে ক্ষতিগ্রস্থদের মুক্তি দেবেন বা তাদের পক্ষে থেকে তাদের প্রটেকশন দেবেন- এমন বিচার বিভাগ আমরা দেখতে চাই।
প্রশাসন দলীয়করণ মুক্ত করার বিষয়টি তুলে ধরে ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, বর্তমানে পুলিশ ও র‌্যাব ট্রেন্ড হয়েছে বিরোধী দলকে পেটাও, কোনো জনসভা করতে দেবে না। পুলিশকে ব্যবহার করা হচ্ছে নিজেদের রাজনৈতিকভাবে রক্ষা করার জন্য। আমরা মনে করি, পুলিশকে রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করা ঠিক নয়। বতর্মান সরকারের মতো পুলিশকে রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করতে দেয়া হবে না। আমরা পুলিশ ও র‌্যাব সত্যিকার অর্থে একটি পেশাদারী একটি সংস্থা হিসেবে দেখতে চাই।
মওদুদ আরও বলেন, আমরা শুধু গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবো না, গণতান্ত্রিক চর্চা ফিরিয়ে আনবো। আমরা নতুন রাজনৈতিক সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠা করবো। প্রতিহিংসা ও হীনমন্যতার রাজনীতি আমরা করবো না। যাতে করে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম প্রভাবিত হয়ে সুন্দর জীবনের স্বপ্ন দেখতে পারে। সংগঠনের সভাপতি আশরাফ উদ্দিন বকুলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক সুকোমল বড়ুয়া, হাবিবুর রহমান হাবিব, কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুল ইসলাম হাবিব, আবু নাসের মো. রহমাতুল্লাহ প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।