Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৬ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

মিসরে আল-জাজিরাসহ ২১টি ওয়েবসাইট বন্ধ

সন্ত্রাসবাদে সমর্থন ও মদদ দেয়ার অভিযোগ

| প্রকাশের সময় : ২৬ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : সন্ত্রাসবাদে সমর্থন ও মদদ দেওয়ার অভিযোগে মিসরে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার মূল ওয়েবসাইটসহ ২১টি ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে দেশটির সরকার । গত বুধবার মিসরের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা মেনা ও নিরাপত্তা সূত্রের বরাত দিয়ে  ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স খবরটি জানিয়েছে। অবশ্য, মিসর সরকারের পক্ষ থেকে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। এর আগে বুধবার সকালের দিকে সউদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতও আল-জাজিরাসহ কিছু ওয়েবসাইট বন্ধ করে দেয়। একজন সিনিয়র নিরাপত্তা সূত্রকে উদ্ধৃত করে বুধবার মেনার প্রতিবেদনে বলা হয়, কাতারসহ বিদেশি অর্থায়নে পরিচালিত মিসরকেন্দ্রিক কয়েকটি ওয়েবসাইট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। মেনা জানায়, সন্ত্রাসবাদ ও উগ্রপন্থার সমর্থন এবং মিথ্যা সংবাদ প্রচারের কারণে ২১টি ওয়েবসাইট বøক করা হয়েছে। এই ওয়েবসাইটগুলোর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও মেনাকে জানায় ওই নিরাপত্তা সূত্র। খবরে বলা হয়, এ ব্যাপারে দেশটির জাতীয় টেলিকম রেগুলেটরি কর্তৃপক্ষের এক কর্মকর্তার কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনিও এই খবরটি নিশ্চিত কিংবা অস্বীকার কোনওটাই করেননি। উল্টো ওই কর্মকর্তা বলেন, যদি এটা সত্যি হয়েও থাকে, তবুও তো কোনও সমস্যা নেই। রয়টার্স কর্তৃপক্ষ জানায়, খবরটি খতিয়ে দেখার জন্য নিজস্ব উদ্যোগে আল জাজিরাসহ পাঁচটি ওয়েবসাইটে ঢোকার চেষ্টা করেও তারা ব্যর্থ হয়েছেন। দ্ইুজন নিরাপত্তা কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন মুসলিম ব্রাদারহুডের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা থাকায় কিংবা কাতারের অর্থায়নে পরিচালিত হওয়ার কারণে ওয়েবসাইটগুলো বন্ধ করা হয়। এর আগেও কাতারের বিরুদ্ধে ব্রাদারহুডকে সমর্থন দেওয়ার অভিযোগ তুলেছিল মিসর। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, মিসরভিত্তিক ওয়েবসাইট মাদা মাসর অভ্যন্তরীণভাবে পরিচালিত হয়ে থাকে এবং এর কোনও  ইসলামি সংশ্লিষ্টতা নেই বলে দাবি করা হয়। তারপরও ওয়েবসাইটটিতে ঢোকা যাচ্ছে না।  মার্কিন সংবাদমাধ্যম হাফিংটন পোস্টের আরবি ভার্সনের ওয়েবসাইটটিতেও প্রবেশ করা যাচ্ছিলো না। রয়টার্সকে নিরাপত্তা সূত্রও এ দুই ওয়েবসাইটের নাম উল্লেখ করেনি। তারা কেবণ পাঁচটি ওয়েবসাইটের নাম জানিয়েছে। বিবিসি, রয়টার্স, আল-জাজিরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিসর

২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
৩০ ডিসেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ