Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

ভোটের স্বার্থে ধর্মকে অপব্যবহার করা হচ্ছে -ড. কামাল হোসেন

| প্রকাশের সময় : ২৮ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : গণফোরাম সভাপতি বিশিষ্ট আইনজ্ঞ ড. কামাল হোসেন বলেছেন, ভোটের স্বার্থে আওয়ামী লীগ এখন সস্তাভাবে ধর্মকে অপব্যবহার করার চেষ্টা চলছে। সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) এর একটি অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবে অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমদের স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন। সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) এ সভার আয়োজন করে।
সৈয়দ আবুল মকসুদের সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় বক্তৃতা করেন সুজনের সাধারণ সম্পাদগক ড. বদিউল আলম মজুমদার, অধ্যাপক রওনক জাহান, মরহুম অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমদের জামাতা মির্জা হাসান প্রমূখ। ড. কামাল হোসেন বলেন, ১৯৭১ সালে ধর্মের নামে গণহত্যা, ধর্ষণ ও লাখ লাখ মানুষকে পঙ্গু করা হয়েছিল। এই ধর্মকে রাজনীতি থেকে সরানোর জন্য সংবিধানে অসা¤প্রদায়িকতার কথা লেখা হয়েছিল। কিন্তু আজ ধর্মকে অপব্যবহার করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আজ যারা ধর্মের দোহাই দেয়, তাদের মূল্যায়নের জন্য একাত্তরের কথা মনে রাখতে হবে। একাত্তরে ধর্মের দোহাই দিয়ে যারা গণহতা করেছে, তারা কী ধর্মের ছিল? তারা কি ইসলাম বিশ্বাস করত? সেগুলো মনে রাখতে হবে। সুপ্রিম কোর্টের সামনে থেকে ভাস্কর্য সরানোর বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে ড. কামাল হোসেন বলেন, এ নিয়ে এখন কিছু বলতে চাই না। আইনজীবীদের একটি সম্মেলন হবে। সেখানে যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার তা নেওয়া হবে। তবে পেছনের যে চেষ্টা, আমি মনে করি, আমাদের দেশের মধ্যে বিভক্তি সৃষ্টি করা। কোনো বিষয় নিয়ে বিভক্তি সৃষ্টি করা উচিত নয়। 



 

Show all comments
  • Mohammed Shah Alam Khan ২৮ মে, ২০১৭, ৭:৩৪ এএম says : 0
    সংবাদটা খুবই সংক্ষিপ্ত তারপরও এখানে ডঃ কামাল সাহেব বলেছেন, ভোটের স্বার্থে আওয়ামী লীগ এখন সস্তাভাবে ধর্মকে অপব্যবহার করার চেষ্টা চলছে। ধর্মকে অপব্যবহার করা এটা খুবই পাপ কাজ আমি মানি, কিন্তু এএল কিভাবে ধর্মকে অপব্যবহার করছে এটার ব্যাখা তিনি দিয়েছেন কিনা আমি জানিনা। তবে বর্তমানে এএল ধর্মীয় বিষয়ে দেশের ছাত্র ছাত্রীদেরকে পাঠ্য পুস্তকের মাধ্যমে আলোকিত করার চেষ্টা নিয়েছে এটা অবশ্যই এএল এর করা উচিত কারন এই দেশ ৯০% মুসলমানদের এটা ভুলা যায়না। তারপর হেফাজতের ন্যায্য দাবী মেনে নিয়েছে এটা এএল তার সঠিক দায়িত্ব পালন করেছে এটাই প্রতিয়মান হয়েছে। এরপর আবার রাষ্ট্রীয় ধর্ম হচ্ছে ইসলাম কাজেই সরকার কোন ভাবেই ইসলামকে অবগ্যা করতে পারেনা। তাছাড়া দেশের অপর বৃহত্তর দল যারা ২৮ বছর দেশ শাসন করেছে তারা সবাই ইসলামি দল গুলোকে সাথে নিয়ে ইসলাম ইসলাম বলে ক্ষমতায় গেছে এদের নিয়ে কামাল সাহেবের কথা নেই। ............................ আল্লাহ্‌ আমাদের দেশের বুদ্ধিজীবীদেরকে নিজ স্বার্থের উর্ধে উঠে জনগণের স্বার্থ নিয়ে ভাবার শক্তি প্রদান করেন। আমীন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর