Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ দাবি পাকিস্তানের

| প্রকাশের সময় : ২৯ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামী নেতা সাবজার আহমেদ বাটের মৃত্যু নিয়ে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ দাবি করেছে পাকিস্তান। পাক প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা সারতাজ আজিজের অভিযোগ, ভারতীয় সেনার গুলিতে সাবজারের মৃত্যু বিচার বহির্ভূত ঘটনা। গত শনিবার জম্মু-কাশ্মীরে ভারতীয় বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয় সবজার আহমেদ বাট ওরফে আবু জার। স্বাধীনতাকামীদের সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিনের কম্যান্ডার বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর পর কার্যত তার উত্তরসূরি হয়ে উঠেছিলেন সবজার। সবজার হত্যার পর ফের ক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে উপত্যকা। খবর ছড়ানোর পর থেকেই নিরাপত্তাবাহিনীকে লক্ষ্য করে ইট, পাথর ছুড়েছে প্রতিবাদী জনতা। গত বছর ৮ জুলাই কাশ্মীরে তরুণ স্বাধীনতাকামী নেতা বুরহান ওয়ানি সেনা অভিযানে নিহত হওয়ার পর দিল্লির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছিল ইসলামাবাদ। স্বয়ং পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ বুরহানকে শহিদ বলে উল্লেখ করেছিলেন। সে সময় শরিফ অভিযোগ করেন, কাশ্মীরি নেতা বুরহান ওয়ানি এবং সাধারণ মানুষকে ভারতের সামরিক ও আধা-সামরিক বাহিনী খুন করছে। সাধারণ মানুষের বিরুদ্ধে যেভাবে ভারতীয় বাহিনী অতিরিক্ত এবং অবৈধভাবে বলপ্রয়োগ করেছে, তা অত্যন্ত নিন্দনীয়। এক বছরের মধ্যে ফের যেন সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। একই রকম ভাবে, সবজারের মৃত্যু নিয়েও দিল্লির দিকে অভিযোগ তুলল ইসলামাবাদ। সারতাজ আজিজের অভিযোগ, এই ঘটনা সম্পূর্ণ মানবাধিকার বিরোধী। এর ফলে কাশ্মীরের জনমানসে পরিবর্তন আসতে পারে। এই মৃত্যুর ঘটনা পুরোপুরি বিচার বহির্ভূত। অবিলম্বে বিষয়টি নিয়ে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ করা উচিত। ভবিষ্যতে যাতে এমন না ঘটে সে দিকেও নজর দিতে হবে।  ডন, ওয়েবসাইট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান

১৯ অক্টোবর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ