Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ইসলাম ধর্মে জঙ্গীবাদের কোন স্থান নেই -শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু

| প্রকাশের সময় : ২৯ মে, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ঝালকাঠি জেলা সংবাদদাতা : শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, ইসলাম ধর্মে জঙ্গীবাদের কোন স্থান নেই। জঙ্গিবাদ ধর্মের শত্রæ, জাতির শত্রæ, দেশের শত্রæ। গোটা মুসলিম বিশ্বকে অস্থিতিশীল করার জন্য একটি চক্র জঙ্গীবাদের উত্থান ঘটিয়ে ফায়দা লুটছে।
তাদের উদ্দেশ্য হল মুসলিম বিশ্বকে ধ্বংস করে তাদের সম্পদ লুট করা। জামায়াতের একটি বড় অংশ এ জঙ্গীবাদের সাথে জড়িত হয়, জড়িত আছে। তার পরেও যারা জড়িত হয় না তাদেরকে ও তারা ক্ষমা করে না তার প্রমাণ ঝালকাঠি। ঝালকাঠিতে পিপি ছিলেন অ্যাডভোকেট হায়দার হোসেন, জামাতের আমির। কিন্তু যখন ঝাকাঠিতে দুই জন বিচার রক কে হত্যা করে বাংলা ভাই। ওই মামলার পিপি থাকায় জঙ্গিবাদের পক্ষে না থাকায় তাকেও হত্যা করা হয়। তাতে প্রমাণ করে জঙ্গীবাদের কোন ধর্ম নেই। বিএনপি বিএনপি সরকারের আমলে প্রথম এই দেশে জঙ্গিবাদের উত্থান ঘটে। বাংলা ভাই সৃষ্টির মধ্য দিয়ে জঙ্গিবাদের উত্থান ঘটাবার চেষ্টা করেছিল। পরবর্তী সময়ে শেখ হাসিনা সরকার ক্ষমতায় এসে দমন করার কারণে সেটা স্থান পায়নি।
দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে পাশাপাশি নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে দেশ পরিচালনা করার সুযোগ করে দিতে হবে। গতকাল রোববার দুপুরে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর ঝালকাঠি জেলা কার্যালয় কর্তৃক আয়োজিত জঙ্গীবাদ বিরোধী জনসচেতনতামূলক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন।
জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আব্দুর রাকিব, পৌর মেয়র লিয়াক আলী তালুকদার, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের ডিডি মিজানুর রহমান প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ