Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২০ মে ২০১৯, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৪ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

থাড প্রত্যাহারের আহ্বান চীনের

| প্রকাশের সময় : ৩ জুন, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : দক্ষিণ কোরিয়ায় মোতায়েন অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা থাড প্রত্যাহার করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বন জানিয়েছে চীন। চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হুয়া চুনইং গত বৃহস্পতিবার বেইজিংয়ে নিয়মিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ আহ্বান জানান। দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র বলে আসছে, উত্তর কোরিয়া থেকে আসা সম্ভাব্য ক্ষেপণাস্ত্র হামলার হুমকি মোকাবেলায় থাড মোতায়েন করা হয়েছে। তবে চীন ও উত্তর কোরিয়া বলে আসছে ওই অঞ্চলে মার্কিন আধিপত্য প্রতিষ্ঠাই থাড মোতায়েনের মূল লক্ষ্য। এদিকে, চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্রের বিবৃতির বরাত দিয়ে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বলছে, থাড মোতায়েনের ফলে চীনের নিরাপত্তা স্বার্থ মারাত্মকভাবে বিঘিœত করবে। এছাড়া, আঞ্চলিক কৌশলগত ভারসাম্য নষ্ট করবে। বাড়তি থাড মোতায়েনে চীন গভীরভাবে উদ্বিগ্ন বলেও ওই বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে। এর আগে, চলতি সপ্তাহের গোড়ার দিকে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে-ইন বলেছেন, তার কাছে থাড মোতায়েনের বিষয়ে যেসব তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে তাতে অনেক সত্য গোপন করা হয়েছে। এ নিয়ে তদন্ত চলছে। অপর এক খবরে বলা হয়, উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞা প্রস্তাবের ওপর জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ভোটাভুটি হতে যাচ্ছে। দেশটির ক্রমাগত ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার প্রতিক্রিয়ায় উত্তর কোরিয়ার একটি ব্যাংক, একটি সামরিক সংস্থা এবং ১৪ জন ব্যক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও চীন। নিরাপত্তা পরিষদে ওই প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হবে। কূটনীতিকদের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে। নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাবের খসড়ায় দেখা যায়, কোরিও ব্যাংক, উত্তর কোরীয় সেনাবাহিনীর সংস্থা স্ট্র্যাটেজিক রকেট ফোর্স এবং ১৪ ব্যক্তি ওই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বেন। ওই ব্যক্তিদের মধ্যে চো ইল ইউর নামও রয়েছে। ধারণা করা হয়, তিনি দেশটির বৈদেশিক গোয়েন্দা কর্মকান্ডের প্রধান। এ নিষেধাজ্ঞা জারি হলে ওই ব্যক্তি ও সংস্থাগুলোর সকল সম্পদ বাজেয়াপ্ত করা হবে এবং তাদের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে। রয়টার্স,বিবিসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন